৬, জুলাই, ২০২২, বুধবার

আফগানিস্তানের বাদগিসে যেভাবে যুদ্ধ থামিয়ে দিলেন মুরব্বিরা

আফগানিস্তানের বাদগিসের রাজধানী কালা-ই-নাউ শহরে তালেবান এবং নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।
আফগানিস্তানভিত্তিক গণমাধ্যম টোলো নিউজ এ তথ্য জানায়।

বাদগিস প্রদেশের গভর্নর হিশামুদ্দিন শাসম বলেন, তালেবান এবং নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের মধ্যে কালা-ই-নাউ শহরে যুদ্ধ বিভিন্ন গোত্রের প্রধানদের মধ্যস্থতায় থামানো গেছে।

প্রদেশের গভর্নর আরও বলেন, বিভিন্ন গোত্রের প্রধানদের মধ্যস্থতায় বৃহস্পতিবার দুপুর ১টা থেকে যুদ্ধবিরতি কার্যকর হয়। তালেবানের যোদ্ধারা কালা-ই-নাউ ছেড়ে গেছে। এর পর পরিস্থিতি নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

গভর্নর যুদ্ধবিরতি মেনে চলবেন বলে জানান। একই সঙ্গে তালেবানও যুদ্ধবিরতি মেনে চলবে এমনটিই প্রত্যাশা তার।

তিনি বলেন, আমরা আমাদের দেওয়া কথা রাখব এবং আমরা আশা করব তালেবানও তাদের দেওয়া কথার খেলাপ করবে না।

স্থানীয়দের সূত্র দিয়ে খবরে বলা হয়, তালেবান এবং নিরাপত্তা বাহিনীর মধ্যে হওয়া লড়াইয়ের কারণে শহরের বিভিন্ন অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

তীব্র লড়াইয়ের কারণে গত আট দিনে এক হাজারের বেশি পরিবার কালা-ই-নাউ থেকে হেরাত প্রদেশ এবং বাদগিসের বিভিন্ন এলাকায় আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়েছে। সংঘর্ষে অন্তত আটজন বেসামরিক লোক নিহত হয়েছেন এবং আহত হয়েছেন ৮০ জনের বেশি। যদিও বেসামরিক নাগরিক, নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য বা তালেবানের প্রকৃতপক্ষে কতজন মারা গেছে তার হিসাব নেই।

কালা-ই-নাউ থেকে পিছু হটার বিষয়ে এখনও কিছু জানায়নি তালেবান।

বাদগিস প্রদেশের ঘোরমাচ জেলা তিন বছর আগে, বালা মুর্গহাব পাঁচ মাস আগে, জাওয়ন্দ, কাদিস, মকুর ও আব কামারী জেলা গত মাসে দখলে নেয় তালেবান।

যুক্তরাষ্ট্রের সেনা প্রত্যাহার প্রক্রিয়ার মধ্যে তালেবান দেশের বিভিন্ন এলাকা দখলের জন্য লড়ছে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে। এর মধ্যে প্রায় প্রতিদিনই কোনো না কোনো জেলা বা এলাকা দখলে নিচ্ছে তালেবান।

সর্বশেষ নিউজ