৭, জুলাই, ২০২২, বৃহস্পতিবার

আফগানিস্তান ছাড়া শেষ মার্কিন সেনা কে এই ক্রিস্টোফার?

তালেবানের বেঁধে দেওয়া সময়ের আগেই আফগানিস্তান ত্যাগ করেছে মার্কিন বাহিনী। ৩১ আগস্টের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রসহ সব পশ্চিমা দেশকে আফগান ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছিল তালেবান।

৩০ আগস্ট সোমবার মার্কিন সামরিক বাহিনীর সর্বশেষ ফ্লাইটটি আফগানিস্তান ত্যাগ করেছে বলে জানিয়েছে পেন্টাগন। এর মাধ্যমে দেশটিতে যুক্তরাষ্ট্রের চালানো যুদ্ধের ‍চূড়ান্ত সমাপ্তি ঘটল।

সেনা প্রত্যাহার সম্পূর্ণ করার আগে কূটনীতিবিদ এবং মার্কিন নাগরিকসহ অসংখ্য মানুষকে ফিরিয়ে আনা হয়েছে বলে জানিয়েছে বাইডেন প্রশাসন। ওই দিন শেষ সি-১৭ বিমানে রওনা দিয়েছেন মার্কিন সেনা ক্রিস্টোফার টি ডোনাহুও।

দীর্ঘ ২০ বছর ধরে যুক্তরাষ্ট্রের যে লক্ষাধিক সেনা আফগানিস্তানের পরিস্থিতি নিজেদের নিয়ন্ত্রণে রেখেছিলেন, তাদেরই একজন ক্রিস্টোফার। আফগানিস্তান ছেড়ে চলে আসা তিনিই যুক্তরাষ্ট্রের শেষ সেনা।

৩০ আগস্ট সেনা প্রত্যাহার সম্পূর্ণ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই তার নাম ও ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। নিজের অজান্তেই ইতিহাসে নাম লেখান ক্রিস্টোফার।

উত্তর ক্যারোলিনার ফোর্ট ব্র্যাগে ৮২তম এয়ারবোর্ন ডিভিশনের কমান্ডিং জেনারেল হিসাবে কর্মরত ক্রিস্টোফার। ২০২০ সাল থেকে এই দায়িত্ব সামলাচ্ছেন তিনি।

নিউইয়র্ক ওয়েস্ট পয়েন্টের আমেরিকার মিলিটারি অ্যাকাডেমি থেকে স্নাতক পাশ করার পর ১৯৯২ সালে কর্মজীবন শুরু করেন ক্রিস্টোফার। প্রথমে মার্কিন সেনার ইনফ্যান্ট্রি শাখার সেকেন্ড লেফটেন্যান্ট হয়ে যোগ দিয়েছিলেন।

কর্মজীবনের প্রথম কয়েক বছর দক্ষিণ কোরিয়ায় মার্কিন সেনাবাহিনীর ইনফ্যান্ট্রি শাখায় কর্মরত ছিলেন ক্রিস্টোফার। পরবর্তীকালে বিভিন্ন দেশে কাজ করার অভিজ্ঞতা অর্জন করেছেন।

দীর্ঘ ২৯ বছরের কর্মজীবনে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব সামলেছেন ক্রিস্টোফার। কখনো স্কোয়াড্রন অপারেশন অফিসার, কখনো স্কোয়াড্রন অফিসার। কখনো আবার ট্রুপ কমান্ডার, সিলেকশন অ্যান্ড ট্রেনিং ডিটাচমেন্ট কমান্ডার, অপারেশন অফিসার, ডেপুটি কমান্ডার বা ইউনিট কমান্ডার। বিভিন্ন সময়ে এসব পদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে তাকে।

পূর্ব ইউরোপ, দক্ষিণ-পশ্চিম এশিয়া এবং আফ্রিকাসহ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে অপারেশন ইরাকি ফ্রিডম, অপারেশন নিউ ডন, অপারেশন ফ্রিডম সেন্টিনেল— অংশ নিয়েছেন তিনি।

সেনাবাহিনীর উচ্চপদে থাকার গুরুদায়িত্ব এবং উল্লেখযোগ্য মিশনের ভার কাঁধে নিয়ে ২৯ বছর পথ চলা ক্রিস্টোফার কাজের মধ্যেও পড়াশোনা চালিয়ে গেছেন। স্নাতক হওয়ার ২১ বছর পর হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেছেন। ২০১৩ সালে আর্মি ওয়্যার কলেজের ফেলোশিপ নিয়ে ওই ডিগ্রি অর্জন করেন তিনি।

৩০ আগস্ট কাবুলের হামিদ কারজাই বিমানবন্দর ছাড়ার সময় নাইট ভিশন ক্যামেরায় তার এই ছবিটি তোলা হয়েছে। সবুজ রঙের এই ছবির পিছনে রয়েছে কাবুল বিমানবন্দর। আমেরিকার শেষ সি-১৭ বিমানে করে আফগানিস্তান ত্যাগ করেন তিনি।

সর্বশেষ নিউজ