১৭, সেপ্টেম্বর, ২০২১, শুক্রবার

এ বছরও বাতিল হতে পারে জেএসসি পরীক্ষা!

প্রাণঘাতি মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে গেল বছর পিইসি ও জেএসসি সমাপনী পরীক্ষা বাতিল করা হয়। সেইসব শ্রেণিতে শিক্ষার্থীদের অটো পাস দিয়ে পরের শ্রেণিতে উত্তীর্ণ করা হয়। এইচএসসি পরীক্ষার্থীদেরও অটো পাস দেয়া হয়েছে।

দীর্ঘ প্রায় এক বছর পর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলছে। আগামী ৩০ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

এবারের এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র প্রণয়ন, পরিশোধন ও মুদ্রণ কার্যক্রমও শুরু হয়েছে। যদিও পরীক্ষার আগে বিশেষায়িত সিলেবাসের ওপর ৬০ কর্মদিবস শ্রেণি কাজ করা হবে। মাঝে আছে রমজান ও ঈদ। এ কারণে পরীক্ষা জুলাইয়ের পরও দুই সপ্তাহ থেকে এক মাস পিছিয়ে যাওয়ার শঙ্কা রয়েছে। এসএসসি জুলাইয়ে শুরু না হলে এইচএসসিও পেছাতে পারে। কোনও কারণে আগস্টে এসএসসি হলে এইচএসসি চলে যাবে অক্টোবরে।

এমন পরিস্থিতিতে এবছরও জেএসসি পরীক্ষা না হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হচ্ছে। সেক্ষেত্রে অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা বার্ষিক পরীক্ষায় অংশ নেবে।

যে কারণেই গেল ২৭ ফেব্রুয়ারি ব্রিফিংয়ে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জেএসসি পরীক্ষার্থীদের ক্লাস-সংক্রান্ত কোনও পৃথক নির্দেশনা দেননি। তারাও প্রথম থেকে চতুর্থ ও ষষ্ঠ-সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের মতো স্কুলে যাবে।

এমনকি নবম ও একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের সপ্তাহে দুদিন ক্লাসে থাকতে হবে। তবে শিক্ষাবোর্ডগুলো ৩০ মার্চের পর অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের নিবন্ধন কাজ সেরে রাখবে। অন্যদিকে জেএসসি না হলেও পিইসি পরীক্ষা নভেম্বরেই নেয়ার চিন্তা আছে সরকারের। যে কারণে তাদের সপ্তাহে ৫ দিন স্কুলে নেয়ার পরিকল্পনা রয়েছে। এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীরা সপ্তাহে ৬ দিন করে স্কুল-মাদরাসায় যাবে।

এসএসসি পরীক্ষার্থীদের ন্যূনতম ৬০ দিন আর এইচএসসিতে ন্যূনতম ৮৪ দিন ক্লাস হবে। ক্লাস শেষ হওয়ার পর পরীক্ষার্থীদের প্রস্তুতির জন্য কমপক্ষে দুই সপ্তাহ সময় দেয়া হবে। এরপরই পর্যায়ক্রমে শুরু হবে পরীক্ষা।

এ বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন জানিয়েছেন, খোলার পর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বিশেষ করে স্কুল-কলেজ-মাদরাসা কীভাবে পরিচালিত হবে সে সংক্রান্ত বিস্তারিত নির্দেশনা পাঠানো হয়েছে। সে অনুযায়ীই ক্লাস ও অন্যান্য কার্যক্রম চলবে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার দুই মাসের মধ্যে অভ্যন্তরীণ কোনও পরীক্ষা হবে না।

৩০ মাচ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক স্তর পর্যন্ত স্কুল, কলেজ, মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া হচ্ছে। ২৪ মে খুলবে বিশ্ববিদ্যালয়। এর এক সপ্তাহ আগে আবাসিক হলগুলো খোলা হবে।

সর্বশেষ নিউজ