১, জুলাই, ২০২২, শুক্রবার

কিয়েভে বিশেষ বাহিনী পাঠানোর কথা ভাবছে যুক্তরাষ্ট্র

ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে বিশেষ বাহিনী পাঠানোর কথা ভাবছে যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন সোমবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

একাধিক মার্কিন দফতরের বরাত দিয়ে ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাইডেন প্রশাসন কিয়েভে অবস্থিত মার্কিন দূতাবাসের রক্ষীদের সাহায্যের জন্য সেখানে স্পেশাল অপারেশনার ফোর্স (এসওএফ) মোতায়েনের কথা ভাবছে।

অবশ্য ওই পরিকল্পনা একেবারেই প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে। এমনকি বাইডেনের কাছেও প্রস্তাবটি তোলা হয়নি বলে বলে ওইসব সূত্র জানিয়েছে।

প্রায় তিন মাস বন্ধ থাকার পর গত সপ্তাহে কিয়েভের মার্কিন দূতাবাস ফের চালু করা হয়।

আপাতত মার্কিন দূতাবাস ও এর সীমিত সংখ্যক কর্মীদের নিরাপত্তা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কূটনৈতিক নিরাপত্তা কর্মকর্তারাই দিচ্ছেন। দূতাবাসের কর্মীর সংখ্যা বাড়লে নিরাপত্তা বাড়ানোর প্রয়োজন আছে কি না এবং স্পেশাল অপারেশনার ফোর্স সেই প্রয়োজনীয়তা পূরণ করার জন্য জন্য প্রস্তুত কী না তা নিয়েই সিদ্ধান্ত চলছে।

যুক্তরাষ্ট্রের মেরিন সেনারা সাধারণত বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অবস্থিত দূতাবাসগুলোর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকে। তবে বর্তমান অনিশ্চিত পরিস্থিতিতে কিয়েভে আপাতত সাধারণ মেরিন সেনারা নিরাপত্তার জন্য উপযুক্ত নয় বলেই মনে হচ্ছে বলে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

অবশ্য যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বাস করে না যে রাশিয়া প্রকাশ্যে মার্কিন দূতাবাসে হামলা করবে। তবে উদ্বেগের বিষয় হল রাশিয়ার বিমান প্রতিরক্ষা বা ক্ষেপণাস্ত্র অসাবধানতাবশত কম্পাউন্ডটিকে লক্ষ্যবস্তু করতে পারে। পরিস্থিতি নাটকীয়ভাবে বদলাতে পারে বলেও আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

সর্বশেষ নিউজ