৭, জুলাই, ২০২২, বৃহস্পতিবার

‘খাদ্য নিরাপত্তাই পাকিস্তানের জন্য চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়াবে’

আগামী দিনে খাদ্য নিরাপত্তাই পাকিস্তানের জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়াবে বলে মন্তব্য করেছেন ইমরান খান।

তিনি বলেন, পাকিস্তানে খাদ্য নিরাপত্তা জাতীয় নিরাপত্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) ইসলামাবাদে ন্যাশনাল কিষাণ কনভেনশনে দেওয়া ভাষণে এসব কথা বলেছেন তিনি।

সংকটের প্রকৃতি ব্যাখ্যা করতে তিনি বলেন, ঘাটতি পূরণ করতে শুধু গত বছরই ইসলামাবাদকে চার মিলিয়ন টন গম আমদানি করতে হয়েছিল। আর এর দাম পরিশোধ করতে হয়েছে বৈদেশিক মুদ্রায়। অথচ পাকিস্তান ইতোমধ্যেই ডলার সংকটে ভুগছে। বিদ্যমান পরিস্থিতিতে এভাবে চালিয়ে নেওয়ার ক্ষমতা ইসলামাবাদের নেই।

ইমরান খান বলেন, যে হারে আমাদের জনসংখ্যা বাড়ছে তাতে আগামী ১০-১৫ বছরে কিভাবে আমরা ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার খাদ্য চাহিদা পূরণ করবো?

তিনি বলেন, খাদ্য নিরাপত্তা সম্পর্কে সচেতনতা বাড়ানো জরুরি এবং পাকিস্তানকে এখন থেকেই এই সমস্যা মোকাবিলায় ব্যবস্থা নেওয়া শুরু করা উচিত।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা যদি আমাদের জাতিকে ভবিষ্যতের চ্যালেঞ্জ থেকে বাঁচাতে চাই তাহলে খাদ্য নিরাপত্তাকে আমাদের জাতীয় নিরাপত্তা হিসেবে দেখতে হবে।

নিজ প্রশাসনের প্রচেষ্টা সম্পর্কে আশাবাদ করে তিনি বলেন, সরকার এখন যেসব পদক্ষেপ নিচ্ছে তাতে ভবিষ্যতে পাকিস্তান খাদ্য নিরাপত্তাহীন নয় বরং খাদ্য রফতানিকারক দেশে পরিণত হবে।

সূত্র: দ্য নিউজ।

সর্বশেষ নিউজ