২৪, অক্টোবর, ২০২১, রোববার

গণপরিবহন চালুসহ তিন দফা দাবিতে রাজধানীতে শ্রমিকদের বিক্ষোভ

গণপরিবহন চালুসহ তিন দফা দাবিতে রাজধানীর বিভিন্ন বাস টার্মিনালে বিক্ষোভ মিছিল করছেন পরিবহন শ্রমিকরা। আজ রোববার (২ মে) সকাল ১০টার পর থেকেই সায়েদাবাদ, ফুলবাড়িয়া, গাবতলী, মহাখালী বাস টার্মিনালে জড়ো হতে থাকেন পরিবহন শ্রমিকরা। এসময় তারা বিভিন্ন দাবি সম্বলিত ব্যানার-ফেস্টুন হাতে নিয়ে বিক্ষোভ মিছিল অংশ নেন৷

শ্রমিকদের তিন দফা দাবির মধ্যে রয়েছে স্বাস্থ্যবিধি মেনে আসনের অর্ধেক যাত্রী নিয়ে নৌপরিবহন ও পণ্য পরিবহন চলাচলের ব্যবস্থা করা, সড়ক পরিবহন শ্রমিকদের আর্থিক অনুদান ও খাদ্য সহায়তা প্রদান করা ও সারাদেশে পাসপোট ট্রাক টার্মিনালগুলোতে পরিবহন শ্রমিকদের জন্য ১০ টাকায় ওএমএসের চাল বিক্রির ব্যবস্থা করা।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের অন্তর্ভুক্ত সারাদেশে ২৪৯টি পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন এ আন্দোলন কর্মসূচি পালন করছে৷ এর পাশাপাশি মঙ্গলবার (৪ মে) সারাদেশে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করার কথা রয়েছে পরিবহন শ্রমিকদের৷

সকালে সায়েদাবাদ বাস টার্মিনালে ঢাকা মহানগর সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের ব্যানারে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন কর‌ছে সায়েদাবাদ আন্তঃজেলা ও নগর বাস টার্মিনাল শ্রমিক কমিটি।

আন্দোলন কর্মসূচি আহ্বানকারী সংগঠনের নেতারা বলছেন, সরকার শুধুই আশ্বাস দিচ্ছে, বাস্তবায়ন করছে না। ফলে তারা কর্মসূচি দিতে বাধ্য হয়েছে।

এদিকে মহাখালী বাস টার্মিনালের সামনে আয়োজিত বিক্ষোভ কর্মসূচি থেকে গণপরিবহন শ্রমিকরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে মোট যাত্রীর অর্ধেক যাত্রী নিয়ে গণপরিবহন চালুর দাবি জানান।

বিক্ষোভ সমাবেশে পরিবহন শ্রমিকরা বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরিবহন ও পণ্য পরিবহন চালুসহ তিন দফা দাবিতে আমরা রাজপথে নেমেছি। স্বাস্থ্যবিধি মেনে মোট যাত্রীর অর্ধেক যাত্রী নিয়ে গণপরিবহন চালু করা হোক

শ্রমিকরা আরও বলেন, সড়ক পরিবহন শ্রমিকদের আর্থিক অনুদান ও খাদ্য সহায়তা করতে হবে। সারাদেশে বাস ও ট্রাক টার্মিনালগুলোতে পরিবহন শ্রমিকদের জন্য ১০ টাকা কেজি দরে ওএমএসের মাধ্যমে চাল বিক্রি করতে হবে।

বিক্ষোভ সমাবেশে ঢাকা জেলা বাস মিনিবাস সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন (মহাখালী) সাধারণ সম্পাদক শহিদুল হক বলেন, পরিবহন শ্রমিকরা কাজ না থাকায় মানবেতর জীবনযাপন করছে। আমরা চাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে গাড়ি চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতে।

সর্বশেষ নিউজ