২৭, অক্টোবর, ২০২১, বুধবার

‘গাবতলী টু পাটুরিয়া ডাইরেক্ট ৩০০’

চলমান কঠোর বিধিনিষেধে আন্তঃজেলা পরিবহন বন্ধ থাকলেও পুলিশের চোখের সামনেই যাত্রীবোঝাই করে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ফেরিঘাটের উদ্দেশে ছেড়ে যাচ্ছে বাস।

সোমবার (১০ মে) দুপুরে গাবতলী থেকে ডি লিংক, ঠিকানাসহ একাধিক গাড়িতে যাত্রী নিতে দেখা যায়। এ সময় বাসের হেলপারদের ‘গাবতলী টু পাটুরিয়া ডাইরেক্ট ৩০০’ বলে যাত্রীদের ডেকে তুলতে দেখা গেছে। যেখানে স্বাভাবিক সময়ে ভাড়া ছিল ১০০ টাকা।

সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী এক সিট ফাঁকা রেখে পরিবহন চালানো কিংবা জেলার বাইরে না যাওয়ার নিয়মকে তোয়াক্কা না করেই চলছে এসব পরিবহন।

ঝিনাইদহগামী যাত্রী মাসুদ বলেন, ‘শুনেছি ফেরি এখন বন্ধ। রাতের ফেরি ধরতে রওনা দিচ্ছি। অন্য সময়ের তুলনায় তিনগুণ ভাড়া দিতে হচ্ছে।’

ঠিকানা পরিবহনের হেলপার সজিব মিয়া বলেন, ‘পাটুরিয়া ঘাট বললেও যাত্রীদের তার আগে উথুলি নামিয়ে দিত হয়। ঘাটে পুলিশ গাড়ি যেতে দেয় না। সেখানে নামিয়ে দেয়ার পর যাত্রীদের আরও ১০০ টাকা বেশি খরচ করে ঘাটে যেতে হয়।’

শাহজাহান নামে এক যাত্রী বলেন, ‘এখন কোনো যাত্রীকে ফেরিতে উঠতে দেবে না। রাতে হয়তো দেবে। এতক্ষণ ফেরির জন্য অপেক্ষা করতে হবে। এবার ঈদযাত্রায় ভোগান্তি সবচেয়ে বেশি।’

এদিকে বাস ছাড়াও ভাড়ায়চালিত মোটরসাইকেল, সিএনজি ও ব্যক্তিগত গাড়িতে যাত্রীদের নিতে দেখা গেছে। এসব পরিবহনেও যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া নেয়ার অভিযোগ আছে।

এ বিষয়ে পুলিশের বক্তব্য নিতে গেলে ঘটনাস্থলে থাকা কোনো ট্রাফিক পুলিশ সদস্যরা কথা বলতে রাজি হননি।

মুত্র: জাগো নিউজ

সর্বশেষ নিউজ