৯, মার্চ, ২০২১, মঙ্গলবার

ঘোড়াঘাটে ছদ্মবেশী প্রেমিকসহ পালাক্রমে গণধর্ষণের ঘটনায় আরও এক জন গ্রেফতার

ঘোড়াঘাট (দিনাজপুর) থেকে মাহতাব উদ্দিন আল মাহমুদঃ দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে আদিবাসী কিশোরী সোখিনা হাসদাকে(১৭) ছদ্মবেশী প্রেমিকসহ পালাক্রমে গণধর্ষণের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে মোঃ রায়হান কবির ওরফে রায়হান(২৪) নামের আরও এক জনকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃত আসামী উপজেলার চকবামুনিয়া বিশ্বনাথপুর (তেঁতুলতলা) এলাকার মোঃ আঃ সামাদ ওরফে আব্দুলের পুত্র।

এ নিয়ে গণধর্ষণের ঘটনায় ৪ জনকে গ্রেফতার করলো থানা পুলিশ। জানা যায়, ৩০ জানুয়ারি শনিবার দিবাগত গভীর রাতে ঘোড়াঘাট উপজেলার খোদাদাতপুর বাওপুকুর গ্রামের মৃত চরকা হাসদার কিশোরী মেয়ে ১০ম শ্রেণীর ছাত্রী সোখিনা হাসদাকে (১৭) ছদ্মবেশী প্রমিকসহ ৩ জন মিলে বাড়ির পাশে লিচু বাগানে পালাক্রমে গণধর্ষণ করে।এ ঘটনায় ৩১ জানুয়ারী রবিার ধর্ষিতা সোখিনা হাসদার মা রাণী সরেন তার মেয়ের দেয়া তথ্যানুযায়ী বাদী হয়ে ঘোড়াঘাট থানায় ধর্ষকদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করলে এ ঘটনায় পুলিশ ৩ ধর্ষককে গ্রেফতার করে সোমবার তারেদর জেল হাজতে প্রেরণ করে।

গ্রেফতারকৃত ধর্ষকরা উপজেলার ঘুঘুরা ভোতরাপাড়া গ্রামের মৃত লাল মিয়ার পুত্র মোঃ লাবু (২৮), আহম্মদ আলীর পুত্র মোঃ আশরাফুল ইসলাম(৩৫) ও খোদাদাতপুর বাওপুকুর গ্রামের মোঃ বেলাল হোসেনের পুত্র মোঃ ওমর ফারুক(২১)।ঘোড়াঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ আজিম উদ্দিন বলেন,৩১ জানুয়ারী রবিবার সন্ধ্যায় ধর্ষিতার মা ধর্ষিতাকে নিয়ে থানায় এসে মামলা দায়ের করলে, তাৎক্ষণিক পৃথক পৃথক স্থান থেকে আমরা ওই তিন ধর্ষককে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হই। আসামীদের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের গণ ধর্ষনের অভিযোগে মামলা রুজু করা হয়। মামলা দায়েরের ৪০ মিনিটের মধ্যে পৃথক পৃথক স্থান থেকে ধর্ষিতা সোখিনার ৩ জন ধর্ষণকারীদের গ্রেফতার করতে আমরা সক্ষম হই।

গ্রেফতারকৃতদের ১৬৪ ধারা মোতাবেক জবানবন্দীতে স্বীকারোক্তিসহ তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে প্রকৃত ধর্ষক চিহ্নিতকরণে ডিএনএ টেস্টের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। যাতে করে ধর্ষণকারীরা আইনের ফাক-ফোকর থেকে বের হতে না পারে। ধর্ষণ ঘটনার মামলা নং-২৯, তাং-৩১/০১/২০২১ইং,ধারা-নারী ও শিশু নির্ষাতন দমন আইন,২০০০(সং/০৩)এর ৯(৩) ই ০১/০২/২০২১ ইং তারিখ আসামীদের বিজ্ঞ আদালতে প্রেরন করা হলে আসামীগন গণধর্ষনের ঘটনার বিস্তারিত বর্ণনা দিয়ে বিজ্ঞ আদালতে স্বীকারোক্তি মুলক জবানবন্দী প্রদান করে। ওই দিনই ধর্ষিতার ২২ ধারার জবানবন্দী ও তদন্তে প্রাপ্ত আসামী উপজেলার চকবামুনিয়া বিশ্বনাথপুর(তেঁতুলতলা) এলাকার মোঃ আঃ সামাদ ওরফে আব্দুলের পুত্র মোঃ রায়হান কবির ওরফে রায়হান(২৪) নামের আরও এক জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং তাকে দিনাজপুর জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

সর্বশেষ নিউজ