৭, ডিসেম্বর, ২০২১, মঙ্গলবার

জাজিরায় ৪ ডাকাত গ্রেফতার, লুণ্ঠিত মালামাল উদ্ধার

শরীয়তপুর প্রতিনিধি: শরীয়তপুর জেলা জাজিরা উপজেলায় ডাকাতির ঘটনার এক মাস পর ৪ ডাকাতকে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। এ সময় তাদের কাছ থেকে লুণ্ঠিত নগদ অর্থ ও মালামাল উদ্ধার করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, জাজিরা উপজেলার বিকে নগন ইউনিয়নের টুমচর সরদার কান্দি গ্রামের ইদ্রিস সরদারের ছেলে কালাচান সরদার (৩৫), একই ইউনিয়নের আলী মাদবর কান্দি গ্রামের ওয়াব মাদবরের ছেলে বাবুল (৪০), বিকে নগর মুন্সি কান্দি গ্রামের জনু ফকিরের ছেলে বাহাদুর ফকির(৩৮) ডাকাতি করা স্বর্ন কেনার অপরাধে বড় কৃষ নগর থেকে বিরেশ বাইনের ছেলে বিষু বাইন(৩৪),গ্রেফতারদের মধ্যে কালাচান সরদার ও বাহাদুর ফকির সিনিয়র জুড়িশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।শনিবার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নড়িয়া সার্কেল) এস এম মিজানুর রহমান এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, , গত ২০ ফেরুয়ারী রাত ১ টার দিকে জাজিরা উপজেলার বিকে নগর টুমচর সরদার কান্দি গ্রামের জনৈক সাহেব আলী সরদারের বাড়ীতে অজ্ঞাতনামা ১৪/১৫ জনের একদল ডাকাত হানা দেয়। ডাকাত দল জনৈক সাহেব আলী সরদারের বাড়ীতে লোকজনকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ৭ ভরিস্বর্ণালংকার নগদ ৭০ হাজার টাকা ৩টি মোবাইল ১ ঘড়ি ১টি টশ লাইটসহ মোট ৭ লাখ ৫৪ হাজার টাকার মালামাল নিয়ে যায়।

পরে দিন সাহেদ আলী সরদার অজ্ঞাতনামা আসামী করে জাজিরা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যামে গতকাল শুক্রবার রাতে জাজিরা উপজেলা বিকে নগর আনন্দ বাজারে অভিযান চালিয়ে ৩ জনকে কালাচান মাদবর, বাবুল সরদার, বাহাদুর ফকির, তাদের তথ্য অনুযায় বিষু বাইনকে গ্রেফতার করে। মামলার বাদী ও তাহার পরিবাররের সনাক্ত মতে ১টি স্বনের চেইন, ২টি আংটি ১ জোড়া কানের দুল আসামীদের থেকে স্বর্ন বিক্রির নগদ ২৮ হাজার টাকা উদ্ধার করেছে। বাকী বাবুল মাদবর ও বিষু বাইনকে ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে প্রেরন করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নড়িয়া সার্কেল) এস এম মিজানুর রহমান বলেন, ডাকাতি হওয়ার পর অজ্ঞানামা করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে ৪ জনকে গ্রেফতার করি। ২ জন স্বীকারোক্তি মুলক জবান বন্দি দিয়েছে। বাকী ২ জন জন্য রিমান্ত চাওয়া হয়েছে। বাকী আসামীদের গ্রেফতারের অভিযান অব্যহত আছে।

সর্বশেষ নিউজ