২৭, অক্টোবর, ২০২১, বুধবার

জেরুজালেমে ইহুদিদের মিছিলের ঘোষণায় নতুন উত্তেজনা

জেরুজালেমে পবিত্র মসজিদ আল-আকসা এলাকায় ইহুদি জাতীয়তাবাদীদের মিছিলের ঘোষণায় নতুন করে সহিংসতার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

বিবিসি জানিয়েছে, সোমবার বার্ষিক জেরুজালেম দিবস উপলক্ষে পতাকা মিছিলের আয়োজন করেছে ইহুদি জাতীয়তাবাদীরা। ১৯৬৭ সালের মধ্যপ্রাচ্য যুদ্ধে পূর্ব জেরুজালেম দখলের স্মরণে এই দিবস পালন করা হয়।

সোমবার সকালে এ পতাকা মিছিল বের করে আল-আকসা দখল করতে যায় ইহুদিবাদীরা।এ সময় ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ায় ইহুদিরা।

১৯৬৭ সালে জেরুজালেমের একটি অংশ দখল করে ইসরাইলিরা।এ দিবসটির স্মরণে প্রতিবছর ১০ মে জেরুজালেমে পতাকা মিছিল বের করে ইহুদিরা।

এই দিনে সাধারণত তরুণ জায়নবাদী ইহুদিরা মুসলিম এলাকাগুলোতে মিছিল নিয়ে প্রদক্ষিণ করে। ফিলিস্তিনিরা একে নির্বিচারি উস্কানি হিসেবে দেখে থাকে।

টানা তিনদিন ধরে জেরুজালেমে পবিত্র মসজিদ আল-আকসায় নিরপরাধ ফিলিস্তিনি মুসল্লিদের ওপর হামলা চালাচ্ছে ইহুদিবাদী ইসরাইলি সেনারা।

সোমবার সকালেও একদল ইসরাইলি সেনা অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে আল-আকসায় ঢুকে পড়ে।এসময় ফিলিস্তিনিরা তাদের বাধা দিলে তাদের ওপর গুলিবর্ষণ করে ইসরাইলি বাহিনী।

গুলিবর্ষণ ছাড়াও টিয়ারগ্যাস এবং সাউন্ড গ্র্যানেড ছোড়াসহ মুসল্লিদের মসজিদ থেকে বের করে দিতে।

ফিলিস্তিনের রেড ক্রিসেন্ট জানিয়েছে, এতে অর্ধ শতাধিক ফিলিস্তিনি আহত হয়েছেন।

ইসরাইলি আদালতের সহযোগিতা নিয়ে দখলদার ইসরাইলি বাহিনী বেশ কয়েকদিন ধরে শেখ জাররাহ শরণার্থী শিবিরের ফিলিস্তিনি নাগরিকদের উচ্ছেদ এবং তাদের ঘর-বাড়ি ধ্বংস করছে।

সেখানে নতুন একটি ইহুদি বসতি স্থাপন করার পরিকল্পনা নিয়ে এই কাজ করছে তেলআবিব। গত কয়েকদিনে ইসরাইলি সেনা ও অবৈধ বসতি স্থাপনকারী ইহুদিরা ফিলিস্তিনিদের সেখান থেকে জোর করে বের কের দেয়ার চেষ্টা করে। এ নিয়ে দফায় দফায় সংঘর্ষ হচ্ছে।

এরইমধ্যে ইসরাইলি সেনাদের সহিংস হামলায় বহু ফিলিস্তিনি আহত ও বেশ কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে।

সর্বশেষ নিউজ