২৪, অক্টোবর, ২০২১, রোববার

ডিভোর্সের পর কি হবে বিল দম্পতির দাতব্য প্রতিষ্ঠানের?

দীর্ঘ ২৭ বছরের সংসারের ইতি টানলেন মাইক্রসফটের সহ-প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস। আনুষ্ঠানিক বিচ্ছেদ হওয়ার পর তাদের আর একসঙ্গে চলা হবে না। দুজনের সম্পতি ভাগ-ভাটোয়ারার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে আদালতকে।

কী ঘটেছিলো মেলিন্ডা গেটসের সাথে ?

শুরু টা সেই ১৯৮০ সালে । প্রথম পরিচয় ঘটে তাদের দুজনের । দুজনের মাঝে শুরু হয় প্রেমের সম্পর্ক । অতঃপর এক পর্যায় শত বাধা উপেক্ষা করে বিয়ে । তাও আবার ১৪ বছর পর ! চৌদ্দ বছর একটা সম্পর্ক কেও কিভাবে টিকিয়ে রাখতে পারে, তা যেনো এ জামানার যুবকেরা বিল গেটস এর কাছ থেকে শিখে আসে । কিন্তু মিডিল এজারদের জন্য রিকমান্ডের না । কারণ বিল গেটস নিজেই টিকিয়ে রাখতে পারেননি তার ১৪ বছরের ভালোবাসাকে ।

তবে কে ছিল ২৭ বছরের দাম্পত্য জীবন ভেঙ্গে ফেলার নেপথ্যে?

সম্প্রতি তারা দুজনই নিজেদের টুইটার একাউন্টের মাধ্যমে বিষয়টি সকলের কাছে নিশ্চিত করেছেন । দাম্পত্যজীবনে ভাঙ্গন দেখা দিলেও , নিজেদের প্রতিষ্ঠিত একটি দাতব্য প্রতিষ্ঠান দুজনের পরিচালনায় চলবে দুজনের টুইটারের সারমর্ম একটাই । দম্পতি হিসেবে তাদের পক্ষে থাকা সম্ভব হচ্ছে না ।

অবশ্য বিচ্ছেদের পরে বড় অংকের এই সম্পত্তি কিভাবে বন্টন হবে সে ব্যাপারে কেউই মুখ খোলেননি । উভয়পক্ষের কাছ থেকে কোন ধরনের বিবৃতিও মেলেনি এ বিষয়ে ।

দুজনের পরিচালনায় যে দাতব্য প্রতিষ্ঠান রয়েছে তা একটি নোবেলজয়ী প্রতিষ্ঠান। যেটি কিনা বিশ্বব্যাপী অনুন্নত এবং উন্নয়নশীল দেশগুলোর সংক্রমণ ব্যাধি নিরাময় এবং দেশের প্রত্যেকটি শিশুকে টিকা আওতায় আনার কাজ করে থাকে । জানা যায় বিলগেটস সম্প্রতি একটি উইল করেছেন, যেখানে বলা হয়েছে, বিল গেটস এর মৃত্যুর পর 90% সম্পত্তি দাতব্য প্রতিষ্ঠানে দান করা হবে । এবং বাকি 10% শতাংশ বিল গেটসের তিন সন্তান এবং তার স্ত্রী এর মধ্যে সমভাগে বন্টন করা হবে । তবে বিচ্ছেদের পর সম্পত্তি বন্টনের ক্ষেত্রে কোন ধরনের হেরফের হবে কিনা সে ব্যাপারে এখনও কিছু জানা যায়নি।

সর্বশেষ নিউজ