৫, আগস্ট, ২০২১, বৃহস্পতিবার

ঢাকায় উদ্ধার হওয়া হাসনা খাতুনকে বাবা মার হাতে তুলে দিলেন লিডো প্রতিনিধিবর্গ

ফারুক হোসেন, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ লোকাল এডুকেশন এন্ড ইকোনোমিক ডেভলোপমেন্ট -লিডো কর্তৃক ঢাকায় উদ্ধার হওয়া শিশু হাসনা খাতুন (১৫) কে তার বাবা মার হাতে তুলে দেয়া হয়েছে। ২৬ ফেব্রুয়ারি (শুক্রবার) সকালে রুহিয়া থানার ওসি চিত্ত রঞ্জন রায়ের অফিসে এই হস্তান্তর প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন রুহিয়া থানার ওসি চিত্ত রঞ্জন রায়, রুহিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুল হক বাবু, লিডোর প্রধান সমন্বয়কারী আইভি রহমান চৌধুরী, নাজিরুল ইসলাম অপু।

লিডোর প্রধান সমন্বয়কারী আইভি রহমান চৌধুরী গণমাধ্যমকে জানান, শিশু হাসনা খাতুন (১৫) ঢাকার খিলগাঁওয়ের এক বাসায় ২মাস ধরে কাজ করতো। বাসায় তার উপর কোন নির্যাতন হয়নি বা খারাপ আচরন করেনি। তার (শিশুটির) একটি সমস্যা ছিল সে মুখে গুল ব্যবহার করতো গুল ব্যবহারের বিষয়টি বাসার কেউ পছন্দ করতো না। মেয়েটিকে উদ্ধার এর পরবর্তী সময়ে তার দেয়া তথ্য মতে যে পরিবারে সে কাজ করত তারা প্রায় সময়ই তাকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করতো।পরবর্তীতে জানা যায় গুল ব্যবহার এর কারণে পরিবারের সদস্যরা তাকে বকেছিল এবং দুই হাজার টাকা চুরির অপরাধে তাকে কঠোরভাবে জেরা করা হলে সে পরের দিনই বাড়ী থেকে বেরিয়ে পড়ে। খিলগাঁও এর বাসা থেকে হেঁটে হেঁটে কমলাপুর ওভার ব্রিজ এ এসে ব্রিজ এর সিড়িতে দাড়িয়ে দাড়িয়ে কাদঁতে থাকে। গত ৬ ফেব্রুয়ারি ২১ইং তারিখে বিকেল ৩টার সময় তাকে সেখান থেকে উদ্ধার করে লিডো কর্তৃক পরিচালিত ট্রানজিশনাল শেল্টার সেতুবন্ধন কমলাপুর এ নিয়ে যাওয়া হয়। পরবর্তীতে আমরা তার কথার উপর ভিত্তি করে তার পরিবারের লোকজনের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করি। আজকে আমরা স্থানীয় জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে রুহিয়া থানার সহযোগিতায় শিশু হাসনা খাতুনকে তার বাবা-মায়ের হাতে তুলে দেই। এ ব্যাপারে রুহিয়া থানায় একটি সাধারন ডায়েরী করা হয়েছে (যার নং-৯৫৫ তারিখ ২৬/২/২১ইং)।

সর্বশেষ নিউজ