১৪, জুন, ২০২১, সোমবার

তদন্তে নতুন মোড়, পিবিআইর ট্রাম্পকার্ড পান্না

চট্টগ্রামে আলোচিত মাহমুদা খানম ওরফে মিতু হ’ত্যাকাণ্ডের আসামি তারই স্বামী সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আখতার। এই মামলার মূল সাক্ষী কামরুল শিকদার ওরফে মুছার এই ঘটনার পর থেকে নিখোঁজ।

বাবুল আখতার চট্টগ্রাম নগর গোয়েন্দা পুলিশে দায়িত্ব পালনকালে তার তথ্যদাতা (সোর্স) হিসেবে পরিচিত ছিলেন মুছা। ঘটনার কয়েক দিন পরই তদন্তে কামরুলের নাম চলে আসে। তবে এখন পর্যন্ত মুছার কোন হদিস খুঁজে পায়নি পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

ধারণা করা হয়, বাবুল আখতার একজন দক্ষ পুলিশ কর্মকর্তা ছিলেন। তিনি জানতেন কোন কারণে তিনি ধরা পড়তে পারেন। তাই তিনি সুযোগ বুঝে মুছাকে গুম করে ফেলেছেন অথবা বিদেশে পাঠিয়ে দিয়েছেন। তবে মুছা এখন কোথায় আছেন সেটি কেউই জানেনা।

মুছা ছিলেন এই ঘটনার প্রধান সাক্ষী। মুছার উপস্থিতির অভাবে বাবুল আখতারকে দোষী প্রমাণিত করা কঠিন হবে। কিন্তু পিবিআই তাদের তদন্তেও অনেক এগিয়ে। মুছার সূত্র ধরে মুছার স্ত্রী পান্নাকে খুঁজে বের করা হয়েছে।

গতকাল সোমবার এই মামলায় আদালতে আসামি কামরুল শিকদার ওরফে মুছার স্ত্রী পান্না আক্তার সাক্ষ্য দেন। আদালতে সাক্ষী হিসেবে পান্না আক্তার ১৬৪ ধারায় স্টেটমেন্ট দিয়েছেন।

এতে তিনি বলেছেন, ২০১৬ সালের ওই ঘটনার পর কিছুদিন পালিয়ে থেকে সারেন্ডারের সিদ্ধান্ত নেন তার স্বামী মুছা। তবে যেদিন মুছা আদালতে যাবেন বলে ঠিক করেছিলেন, সেদিনই গোয়েন্দা পুলিশ পরিচয়ে কয়েকজন তাকে বাসা থেকে ধরে নিয়ে যান।

পান্না বলেন, ঘটনার পর অনেক বেশি উদ্বিগ্ন ছিলেন মুছা। কয়েকবার বাবুল আখতারের সঙ্গে ফোনে কথা বলতে দেখেছি। দু-একদিন পরই টের পেয়েছিলাম মুছা কোন না এই ঘটনায় সরাসরি জড়িত। আমি মুছার কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেছিলেন, আমি করিনি, করিয়েছি। এছাড়া কোন পথ ছিল না। নইলে আমার নিজেরই ক্ষতি হতো।

স্ত্রী মিতুকে হ’ত্যায় মুছাকে ব্যবহার করেছেন সাবেক এসপি বাবুল আখতার। এজন্য কোন কিছু হবে না মর্মে ‘শেল্টার’ দেওয়ার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছিলেন বাবুল আখতার। এমনটাই দাবি করেন মুছার স্ত্রী পান্না আক্তার।

মুছাকে যেদিন বাসা থেকে উঠিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়, সেদিনই সর্বশেষ তার সাথে কথা হয় পান্নার।

পিবিআই তদন্তে যদি এটি নিশ্চিত হয় যে মুছাকে আর খুঁজে পাওয়া যাবে না, সেক্ষেত্রে মুছার স্ত্রী পান্নাই কি হবেন এই মামলার ট্রাম্পকার্ড? যার মাধ্যমে বাবুল আখতারের সম্পৃক্ততা প্রমাণিত হতে পারে?cd- সময় এখন

সর্বশেষ নিউজ