৪, আগস্ট, ২০২১, বুধবার

নতুন দায়িত্বপ্রাপ্ত পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী কে এই শামসুল আলম?

পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন শুরু করেছেন পরিকল্পনা কমিশনের সাবেক সিনিয়র সচিব ড. শামসুল আলম। সোমবার (১৯ জুলাই) দায়িত্ব গ্রহণ উপলক্ষে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে তাঁকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেওয়ার সময় নতুন পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম বলেন, পরিকল্পনা কমিশনে আমার পুনর্জন্ম হয়েছে। এটি অপূর্ব পাওনা। দীর্ঘ ১২ বছর এই চত্বরে কাজ করার সুযোগ পেয়েছি। আজ থেকে নতুন দায়িত্ব পালন শুরু করলাম।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমার ওপর যে আস্থা ও বিশ্বাস রেখেছেন, সেটি যাতে রক্ষা করতে পারি সেজন্য সবার সহযোগিতা প্রয়োজন। দলগত কাজের মাধ্যমে পরিকল্পনা মন্ত্রীর সঙ্গে পরামর্শ করেই উন্নয়নকে এগিয়ে নিতে চাই।

ড. শামসুল আলম আরও বলেন, আমি আমার কর্মজীবনে স্বচ্ছতার প্রমাণ দিতে পেরেছি। কোন অবৈধ সুবিধা নেইনি। দেশটাই আমরা কাছে বড়। স্বচ্ছ ভাবমূর্তি ছিল বলেই আজ আমি এই জায়গায় আসতে পেরেছি।

২০০৯ সাল থেকে এখন পর্যন্ত সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের ১১৪টি প্রকাশনা হয়েছে। অথচ ১৯৭২ সাল থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত প্রকাশনা হয়েছিল মাত্র ১৪টি। আমার হাতে যতগুলো পরিকল্পনা হয়েছে সবগুলোই গ্রহণযোগ্যতা পেয়েছে। সবার প্রশংসাই পেয়েছি।

তিনি বলেন, বিসিএস উত্তীর্ণ হওয়ার পর আমাকে শিল্প মন্ত্রণালয়ে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু আমি যোগ দেইনি। কারণ পরীক্ষার ফল প্রকাশ হতেই দেড় বছর দেরি হয়। ওই সময়ের মধ্যে আমি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক হিসেবে যোগ দিয়ে ফেলেছিলাম। তাই সেখান থেকে আর বের হতে পারিনি।

সাধারণ অর্থনীতি বিভাগে দায়িত্ব নেওয়ার সময় কোন পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা ছিল না। বিশ্বব্যাংক-আইএমএফ-এর পরামর্শে সে সময় পিআরএসপি ছিল। হঠাৎ করে পরিকল্পনা থেকে বেরিয়ে আসাটা তখন ছিল সংবিধানের লঙ্ঘন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকার দায়িত্ব নেওয়ার পর আবারও পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনায় ফিরে আসা হয়েছিল।

রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে এম এ মান্নান বলেন, আমাদের সঙ্গে আধুনিক ও নতুন ইঞ্জিন যোগ হয়েছে। সুতরাং কাজের গতি আরও বাড়াতে হবে। কাজের গভীরতা ও ব্যাপ্তি অনেক বাড়বে বলেই আশা করি। শেখ হাসিনার সরকার জীবন্ত সরকার। ড. শামসুল আলম আমাদের সঙ্গে ছিলেন। আবারও নতুন করে দায়িত্ব পাওয়ায় আমরা অনেক বেশি খুশি হয়েছি।

পরিকল্পনা বিভাগের সচিব জয়নুল বারীর সভাপতিত্বে আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বাস্তবায়ন, পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগের (আএমইডি) সচিব প্রদীপ রঞ্জন চক্রবর্তী, পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব মোহাম্মদ ইয়ামিন চৌধুরী, পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য মামুন-আল-রশিদ এবং মোছাম্মৎ নাসিমা বেগমসহ অন্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সর্বশেষ নিউজ