২৮, অক্টোবর, ২০২১, বৃহস্পতিবার

নতুন পরিচয়ে সাবিলা নূর

অনলাইন ডেস্ক:
দেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী সাবিলা নূর। সবলীল অভিনয় দিয়ে জয় করেছেন দর্শকদের মন। এবার ‘গ্লো অ্যান্ড লাভলী’ এর নতুন ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হয়েছেন এই অভিনেত্রী। সম্প্রতি রাজধানীতে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে ‘গ্লো অ্যান্ড লাভলী’ এর সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে চুক্তিবদ্ধ হন সাবিলা নূর।

এখন থেকে বাংলাদেশে ‘গ্লো অ্যান্ড লাভলী’ এর যাবতীয় বিজ্ঞাপন ও ব্র্যান্ড প্রচারণায় অংশ নেবেন সাবিলা নূর। সৌন্দর্যের ধারণাকে আরও বিস্তৃত করতে গত বছর ইউনিলিভার এর জনপ্রিয় ব্র্যান্ড ‘ফেয়ার অ্যান্ড লাভলী’ এর নতুন নামকরণ করা হয় ‘গ্লো অ্যান্ড লাভলী’। ‘গ্লো অ্যান্ড লাভলী’ সৌন্দর্যের বৈচিত্র্য উদযাপন ও বাধা অতিক্রম করে নারীদের এগিয়ে যেতে অনুপ্রেরণা দেয়। একইসঙ্গে তাগিদ দেয়, যাতে স্বপ্ন জয়ের পথে কোনো কিছুই তাদেরকে পিছু হটাতে না পারে।

‘গ্লো অ্যান্ড লাভলী’ যাদের কথা বলে, সাবিলা নূর তাদেরই একজন। বর্তমানে জনপ্রিয়তার তুঙ্গে থাকা অভিনেত্রীদের মাঝে তিনি অন্যতম। প্রায় এক দশকের অভিনয় ক্যারিয়ারে দর্শকদেরকে সাবিলা অনেকগুলো ভালো কাজ উপহার দিয়েছেন। সাবলীল অভিনয়ের মাধ্যমে বাংলাদেশের প্রতিটি আত্মবিশ্বাসী নারীর প্রতিনিধিত্ব করছেন তিনি। আত্মবিশ্বাসের সাথে জয় করেছেন লাখো মানুষের মন। তার সাফল্যের ‘গ্লো’ (দ্যুতি)-তে অনুপ্রাণিত হচ্ছেন হাজারো নারী। আর এ কারণেই ব্র্যান্ডের নতুন মুখ হিসেবে সাবিলা নূরকে বেছে নিয়েছে ‘গ্লো অ্যান্ড লাভলী’।

সৌন্দর্যের ধারণাকে আরও বিস্তৃত করার ক্ষেত্রে ‘গ্লো অ্যান্ড লাভলী’ এর প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করে ইউনিলিভার বাংলাদেশ লিমিটেড এর বিউটি অ্যান্ড পার্সোনাল কেয়ার মার্কেটিং ডিরেক্টর আফজাল হাসান খান বলেন, ‘গ্লোবাল স্কিন কেয়ার ব্র্যান্ড হিসেবে সৌন্দর্যের ধারণাকে আমরা নতুনভাবে দেখছি এবং সকল রঙের ত্বকের যত্নে পাশে থাকছি। ‘গ্লো অ্যান্ড লাভলী’ আত্মবিশ্বাসী হতে এবং নিজের সেরা রূপটি প্রকাশ করতে সাহায্য করে। সবার কাছে পৌঁছানো ও সকল রঙের ত্বকের যতœ নেয়াই আমাদের লক্ষ্য। নারীর নিজস্ব পরিচয় তৈরিতে আমরা বিরামহীনভাবে তাদের পাশে থাকার পাশাপাশি নতুন চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে নিজের যোগ্যতায় নারীরা যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে, সেই সাফল্যগাঁথাকে তুলে ধরার চেষ্টা করছি।’

ব্র্যান্ডটির নতুন অ্যাম্বাসেডর সাবিলা নূর বলেন, ‘বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় ও আইকনিক স্কিন কেয়ার ব্র্যান্ডের সাথে যুক্ত হতে পেরে আমি ভীষণ আনন্দিত ও সম্মানিত বোধ করছি। এই ব্র্যান্ডটি নারীর ভেতরে লুকিয়ে থাকা আভা প্রকাশে সাহায্য করে এবং তাদেরকে নিজের ত্বকের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী করে তোলে। এমন একটি ব্র্যান্ডের সাথে কাজ করতে পেরে আমি গর্বিত, যে ব্র্যান্ডটি নারীদের সামনে এগিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে নিজেকে পরিবর্তনে সাহায্য করে এবং নারী ক্ষমতায়নের স্পষ্ট বার্তা দেয়।’

সর্বশেষ নিউজ