১৭, সেপ্টেম্বর, ২০২১, শুক্রবার

নরসিংদীতে পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে প্রেমের ফাঁদে ফেলে ধর্ষণের অভিযোগ

সাইফুল ইসলাম রুদ্র, নরসিংদী প্রতিনিধি: নরসিংদীর শিবপুর উপজেলার জয়নগর ইউনিয়নের এক অসহায় নারীকে (৩৫) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে ওবাইদুল্লাহ নামে পুলিশের এক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে। সে শিবপুর উপজেলার জয়নগর ইউনিয়নের আঃ বাছেদ মাষ্টারের ছেলে, তার পিতা আজকিতলা হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক। এ ঘটনায় ধর্ষণের শিকার ওই নারী বলেন, গত প্রায় ১০ বছর ধরে বিয়ের প্রলোভন এবং পুলিশী ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে কনস্টেবল ওবাইদুল্লাহ আমাকে ধর্ষণ করে আসছে। বর্তমানে সে আমাকে বিয়ে না করে সামাজিক সোসাল মিডিয়ায় আমার অশ্লীল ভিডিও এবং স্থির চিত্র ছেড়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে তার জীবন থেকে সরে যাওয়ার কথা বলছে।

এদিকে ধর্ষণকারী পুলিশ কর্মকর্তা ওবাইদুলের বাড়ীতে সংবাদ কর্মী রুদ্র গেলে তার চাচাতো ভাই ও পিতা আঃ বাছেদ মাষ্টার সংবাদ কর্মীকে বলেন, আমার ছেলের উক্ত ঘটনা সত্য। কারণ কিছুদিন পূর্বে মেয়ের পিতাকে ডেকে এনে ক্ষমা চেয়ে একটি সালিশ দরবার আমরা করেছি। এ বিষয়ে আঃ বাছেদ মাষ্টার আরো বলেন, যেহেতু আমার ছেলে উক্ত অপরাধ করেছে তাই আমি ক্ষমাপ্রার্থী।

এই পুলিশ কর্মকর্তা ওবাইদুলের বিরুদ্ধে এলাকায় গিয়ে আরো অনেক তার কু-কর্মের কথা বেরিয়ে এসেছে। বিস্তারিত বিষয়ে আগামী সংখ্যায় আরো গুরুত্বপূর্ণ চাঞ্চল্যকর তথ্য বেরিয়ে আসছে।

এদিকে অসহায় ধর্ষণের শিকার নারীটি সংবাদ কর্মী রুদ্র এর নিকট অভিযোগ করে বলেন, বর্তমানে আমি অসহায়ভাবে জীবন ধারণ করছি। সে আমাকে সমাজের নিকট প্রতিনিয়ত ছোট করেছে এবং আমার মান সম্মান নিয়ে খেলা করেছে। তাছাড়া সে কথায় কথায় তার পুলিশী ক্ষমতা দেখায়। সে আরো বলে যে, এটা নিয়ে বেশী বাড়াবাড়ি করলে সে আমার পিতা-মাতাকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে দিবে। অথচ সে আমাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এবং পুলিশী ক্ষমতার দাপট খাটিয়ে আমার সাথে দীর্ঘ ১০ বৎসর শারীরিক সম্পর্ক তৈরী করে যা তার মোবাইল ফোনে ভিডিও আকারে ধারণ করে। বর্তমানে এগুলো সে আমার বিভিন্ন আত্মীয় স্বজনের নিকট পাঠাচ্ছে। বর্তমানে এর সঠিক বিচার না পেলে আমার আত্মহত্যা ছাড়া কোন উপায় নাই।

এই বিষয়ে ধর্ষণকারী পুলিশ কর্মকর্তা ওবাইদুলের নিকট মোবাইল ফোনে জানতে চাইলে তিনি এই বিষয়টি নিয়ে পরবর্তীতে আলোচনা করবে বলে প্রস্তাব দেয়।

এদিকে ঢাকা ডিভিশনের পুলিশের এক উর্দ্ধতন কর্মকর্তার নিকট এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ বিষয়ে অভিযোগ পেলে সঠিক তদন্ত পূর্বক কনস্টেবল ওবাইদুলের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা নেওযা হবে।
এই বিষয়টি নিয়ে পুলিশ মহা-পরিচালকের নিকট যাওয়ার প্রস্তুতি চলছে বলে সংবাদ পাওয়া যাচ্ছে। তাছাড়া এই বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেতে আগামী সংখ্যা চোখ রাখুন।

সর্বশেষ নিউজ