৭, জুলাই, ২০২২, বৃহস্পতিবার

নরসিংদীতে স্বামী বিদেশে , দেশে পরকীয়ায় মত্ত স্ত্রী

সাইফুল ইসলাম রুদ্র, নরসিংদী প্রতিনিধি: নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার চরমরজাল এলাকার বাসিন্দা মোঃ আবু কালামের স্ত্রী রুনা আক্তারের বিরুদ্ধে পরকীয় সহ অসামাজিক কর্মকান্ডের অভিযোগ উঠেছে। এদিকে স্বামী মোঃ আবু কালাম দেশের বাইরে বিদেশে (সৌদি আরব) কঠোর পরিশ্রম করে, মাথার ঘাম পায়ে ফেলে টাকা পাঠান স্ত্রীকে। অপরদিকে দেশে স্ত্রী পরকীয়ায় মত্ত।

এ ঘটনা হাতেনাতে ধরে ওই প্রবাসীর আপন বড় ভাই মোঃ মজলু মিয়া এবং তার পরিবার। কিছুদিন আগে মধ্যরাতে কক্ষের ভেতর পুরুষের শব্দ শুনে মোঃ মজলু মিয়া উত্তরের ঘর থেকে দৌড়ে এসে আপত্তিকর অবস্থায় তার ছোট ভাইয়ের বউ রুনা বেগম ও সাথে একজন পর পুরুষকে দেখে ফেলে। কিন্তু অচেনা সেই যুবক আবুল কালামকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে পালিয়ে যায়। এতে রুনা আক্তার ক্ষিপ্ত হয়ে তার পোষা মানুষদেরকে দিয়ে মোঃ মজলু মিয়া সহ তার পরিবারের সকলকে প্রতিনিয়ত হয়রানি করে আসছে।

গ্রামবাসীরা জানান, স্বামী বিদেশে স্ত্রী-সন্তানের জন্য শরীরের ঘাম ঝরাচ্ছেন আর এদিকে স্ত্রী পরকীয়ায় মত্ত হয়ে আনন্দ ফুর্তিতে দিন কাটাচ্ছে। তাই আমরা বিষয়টি সহজভাবে মেনে নিতে পারিনি। আমরা যে কেউ প্রতিবাদ জানাতে গেলে সে আমাদেরকে মিথ্যা মামলা দিয়ে ফাঁসানোর হুমকি দেয়। তাই আমরা কেউই ভয়ে মুখ খুলতে পারছি না।

এদিকে এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে আজ ২৫ শে আগষ্ট রোজ বুধবার সকাল ১০ টায় মোঃ মজলু মিয়ার বাড়ীতে এক সংবাদ সম্মেলন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী মোঃ মজলু মিয়া অভিযোগ করে বলেন, আমার ভাইয়ের বৌয়ের অত্যাচার ও জুলুমে আমার পরিবার বর্তমানে খুবই নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। সে গতকাল কতগুলো ভাড়াটিয়া মানুষ নিয়ে নিজের ঘরে আগুন লাগিয়ে আমাদের মিথ্যা মামলা দিয়ে ফাঁসানোর চেষ্টা করেছিল। আমার দোষ হলো, আমি কেন তার অসামাজিক কার্যকলাপে বাধা দেই।
এ বিষয়ে রুনা আক্তারের সাথে যোগাযোগ করলে, সে কোন কিছু বলতে রাজি হয়নি।
এদিকে মোঃ মজলু মিয়ার পরিবার বলেন, বর্তমানে আমরা আতঙ্কে আছি। তাই ন্যায় বিচার পাবার আশায় প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

সর্বশেষ নিউজ