৬, জুলাই, ২০২২, বুধবার

নরসিংদীর পলাশে গ্রুপহীন রাজনীতির কারণে স্বতন্ত্র প্রার্থীর কাছে নৌকার পরাজয়

সাইফুল ইসলাম রুদ্র, নরসিংদী প্রতিনিধি: নরসিংদীর পলাশ উপজেলার গজারিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনে নৌকা পরাজিত হয়েছে। গত ২১ শে জুন রোজ সোমবার অনুষ্ঠিত ওই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ (নৌকা) মনোনীত প্রার্থী বদরজ্জামান ভূইয়াকে হারিয়ে চশমা প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন একই দলের স্বতন্ত্র প্রার্থী চেয়ারম্যান মোঃ জাকির হোসেন চৌধুরী।

এদিকে এই ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রকাশ হয় দলীয় কুন্ডল। প্রকাশ হয় দলের মধ্যে থাকা বিভিন্ন ষড়যন্ত্র। এদিকে গজারিয়া ইউনিয়নের আইন বিষয়ক সম্পাদক সংবাদকর্মী রুদ্রকে বলেন, বর্তমান সংসদ সদস্য ড. দিলীপ ও সাবেক সংসদ সদস্য আশরাফ খান পোটনের বিরোধীতার কারণে আজকে নৌকার এমন বেহাল দশা। শুধু তাই নয়, একই দলের নেতাকর্মীরা দলীয় প্রতীককে সমর্থন না করে উল্টো স্বতন্ত্র প্রার্থীর চশমা মার্কাকে সমর্থন দিয়েছে। তাই এই নৌকার ভরাডুবি হয়েছে।

এদিকে গজারিয়া ইউনিয়নের ভোটার মোঃ আঃ হাসিম অভিযোগ করে বলেন, আওয়ামীলীগ (নৌকা) মনোনীত প্রার্থী বদরজ্জামান ভূইয়ার দলের প্রতি অমনযোগী কিছু কর্মকান্ডের কারণে বিতর্ক তৈরী হয়েছে তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের মাঝে। যার ক্ষতিকর প্রভাব পড়েছে এই নির্বাচনে।

পরবর্তীতে গজারিয়া ইউনিয়নে নৌকার ভরাডুবিতে দলীয় নেতারা হতাশ হয়ে পড়েছে। অপরদিকে তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের অভিযোগ, আওয়ামীলীগ (নৌকা) মনোনীত প্রার্থী বদরজ্জামান ভূইয়া তার নিজের ভুলের কারণেই সে পরাজয় বরণ করেছে বলে অভিযোগ তাদের। এই বদরজ্জামান ভূইয়া ক্ষমতার প্রভাব খাঁটিয়ে নির্বাচিত হতে চেয়েছে বলে অভিযোগ ভোটারদের।
এদিকে একই দলের এক ছাত্রলীগ নেতাসহ বিভিন্ন নেতাকর্মীরা একই দলে থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থীর জন্য ভোট চেয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

খোঁজ-খবর নিয়ে জানা যায় যে, নির্বাচনের পূর্বে নৌকার মাঠ খুবই ভালো ছিল এবং বিজয়ী হওয়া দৌড়ে নৌকা এগিয়ে ছিল। তবে কিছু অসাধু নেতাকর্মীদের অর্থের লোভ এবং একই দলের গ্রুপহীন প্রতিদ্বন্দ্বিতা মূলক কর্মকান্ডের বর্তমানে নৌকার এই বেহাল দশা।
এদিকে নির্বাচন বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, এভাবে যদি একই দলে থেকে কিছু অসাধু নেতাকর্মীরা গ্রুপহীন রাজনীতি করে এবং অর্থের কাছে নিজেদের বিক্রি করে ফেলে তাহলে ভবিষ্যতে আওয়ামীলীগের জন্য এটা হুমকিস্বরূপ হতে পারে।
কিন্তু বর্তমান সরকার দেশের উন্নতি এবং দলীয় শৃঙ্খলা ফিরাতে যে নিরলস অক্লান্ত পরিশ্রম করছে তা প্রশংসার দাবীদার।

সর্বশেষ নিউজ