২৪, জুন, ২০২১, বৃহস্পতিবার

নড়িয়ায় পরাজিত কাউন্সিললের উপর হামলা, আহত ৬

শরীয়তপুর প্রতিনিধি: শরীয়তপুরের নড়িয়ায় পরাজিত কাউন্সিলের উপর হামলার ঘটনায় ৬ জন আহত হয়েছে। এ সময় একটি পরিত্যক্ত ভিটা থেকে ৫টি ককটেল ও ৫টি রামদা উদ্ধার করেছে নড়িয়া থানার পুলিশ।গতকাল রোববার রাতে নড়িয়া পৌরসভার শুভগ্রাম এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

থানা পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, গত ৩০ জানুয়ারি নড়িয়া পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সেই নির্বাচনে পৌরসভার ২নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে (ডালিম) প্রতীক নিয়ে পৌরসভা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর শেখ এর প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থী (উঠপাখি) প্রতীকে পৌরসভা আওয়ামীলীগের সাবেক প্রচার সম্পাদক মো. মোকলেছ ব্যাপারী। নির্বাচনে বিজয়ী হোন আবু জাফর শেখ।

নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আবুজাফর ও মোকলেছের সমর্থকদের মধ্যে দ্বন্ধ চলে আসছিল। রোববার রাতে মোকলেছ ব্যাপারী নড়িয়া বাজারে আসলে আবু জাফরের সমর্থকরা মোকলেছের ওপর হামলা চালায়। এতে গুরুতর আহত হয় মোকলেছ ব্যাপারীসহ ৩ জন। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে নড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সে ভর্তি করে। অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঐ রাতেই ঢাকা প্রেরন করে। পরে মোকলেছের সমর্থকরা নড়িয়ার বারইপাড়া গ্রামের কাউন্সিল আবু জাফরের সমর্থক মৃত জালাল উদ্দিন মৃধার ছেলে ছলেমান মৃধা (৬৮) ও তার ছেলের বউ মারিয়া আক্তারকে (২০) পিটিয়ে আহত করে। তাদের শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নড়িয়া সার্কেল) এস এম মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে অভিযান চালায়। এ সময় গালর্স স্কুল সংলগ্ন এলাকায় একটি পরিত্যক্ত ভিটা থেকে ৫টি তাজা ককটেল ও ৫টি রানদা উদ্ধার করেছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নড়িয়া সার্কেল) এসএম মিজানুর রহমান জানান, নড়িয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালেয় সংলগ্ন শুভগ্রাম এলাকায় আবু জাফর শেখ ও মোকলেছ ব্যাপারীর মধ্যে মারামারির প্র¯ুÍতি চলছিল শুনে সেখানে যাই। সেখানেঅভিযান চালিয়ে ৫টি ককটেল ও ৫টি রামদা উদ্ধার করি। এ ঘটনায় তদন্ত চলছে।

সর্বশেষ নিউজ