৩, ডিসেম্বর, ২০২১, শুক্রবার

পাহাড় ধসে দুই রোহিঙ্গার মৃত্যু

কক্সবাজার প্রতিনিধি: কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফে পাহাড় ধসে দুই রোহিঙ্গা নারী পুরুষের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার ৫ জুন দুপুর একটার দিকে টেকনাফের চাকমার কুলের ২১ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের এ/২ ব্লকে পাহাড় ধসে নুর হাসিনা (২০) নামে এক রোহিঙ্গা নারী মারা যান।
এর আগে সকাল ১০টার কিছু সময় পর উখিয়ার ময়নার ঘোনার ১২ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের জে/৭ ব্লকে পাহাড় ধসে মৃত্যু হয় রহিম উল্লাহ (৩২) নামে এক জনের।অতিরিক্ত শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার শামসু দৌজ্জা নয়ন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, শনিবার সকাল ও দুপুর দিকে এঘটনা ঘটে খবর পেয়ে ক্যাম্পে দ্বায়িরত এপিবিএন ও এনজিও সংস্থা প্রতিনিধিরা আহতদের উদ্ধার করে ক্যাম্পের হাসপাতালে ভর্তি চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। স্থানীয় বাসিন্দা শরিফ আজাদ ও ক্যাম্পের বাসিন্দা সূত্রে জানা যায়, শনিবার দুপুরে উখিয়া ১২ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পে হঠাৎ পাহাড় ধ্বসে J/7-ব্লকের বাসিন্দা রহিম উল্লাহ বসত ঘরে ধ্বসে পড়ে এতে রহিম উল্লাহ ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয়, আহত বেশ কয়েকজন। তবে আহতদের পরিচয় এখনো শনাক্ত করা যায়নি।

কক্সবাজারের ১৬ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম জানান, দুপুরে প্রচন্ড বৃষ্টিতে চাকমারকুলের ২১ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের এ/২ ব্লকের ১৮ নম্বর ঘর সংলগ্ন পাহাড় ধসে পড়লে মাটিতে চাপা পড়েন নুর হাসিনা। খবর পেয়ে সেখানে দায়িত্বরত এপিবিএন সদস্য ও আশপাশের লোকজন তাৎক্ষনিক তৎপরতা চালিয়ে তাকে উদ্ধার করে ক্যাম্পের সেভ দ্য চিলন্ড্রেন হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

এদিকে কক্সবাজারের ৮ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খন্দকার আশফাকুজ্জামান জানান, সকাল ১০ টা ১০ মিনিটের দিকে ময়নারঘোনার ১২ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের জে/৭ ব্লকের শেল্টারের পাশে মাটি কাটতে গিয়ে টিলার মাটি ধসে মৃত্যু হয় রহিম উল্লাহর। এ ঘটনায় সাধারণ ডায়েরী লিপিবদ্ধ করা হয়েছে।

সর্বশেষ নিউজ