৩, ডিসেম্বর, ২০২১, শুক্রবার

পুর্ব শত্রুতা জের ধরে নড়িয়ায় এক জনকে কুপিয়ে জখম, আতংকে পরিবার

শরীয়তপুর প্রতিনিধি: পুর্বশত্রুতা জের ধরে নড়িয়া উপজেলা আল অমিন মাদবর নামে এক জনকে কুপিয়ে মারাত্নক জখম করেছে সন্ত্রাসীরা। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে শরীয়তপুর সদর হাসপাতাল পরে তাকে আশংকা জনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ব্যাপরে নড়িয়া থানায় গতকাল রাতে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত ২ দিনেও নড়িয়া থানা পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। আতংকে পরিবার।

নড়িয়া থানা ও মামলার বাদী ইলিয়াস মাদবর সুত্রে জানা যায়, শরীয়তপুর জেলার নড়িয়া উপজেলার শাওড়া এলাকার আনোয়ার মাদবরের সঙ্গে একই এলাকার সেলিম মাদবরের বিরোধ চলে আসছে। তার জের ধরে গত বৃহস্পতিবার রাতে শাওড়ার পূরাতন বাড়ী থেকে আনোয়র হোসেন মাদবরের ছেলে আলা-আমিন মাদবর (২৯) শাওড়ার ইট ভাটা সংলগ্ন নতুন বাড়ীতে যাওয়ার পথে ধারালো অস্ত্র্র দিয়ে কুপিয়ে মৃত ভেবে কীর্তি নাশা নদীর পাড়ে ফেলে যায় সেলিম মাদবরের লোকজন। স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। তার অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করে।

এ ব্যাপারে আহতের ভাই ইলিয়াস মাদবর বাদী হয়ে গতকাল শক্রবার রাতে নড়িয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করে।
আহত আল- আমিন মাদবরের বাবা আনোয়র হোসেন মাদবর বলেন, আমার সাথে বিরোধের জের ধরে সেলিম মাদবর ও তার লোকজন আমার ছেলেকে কুপিয়ে মারাত্নক আহত করেছে। আমি এর বিচার চাই।
নড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অবনী শংকর কর বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা রুজু করা হয়েছে। আমরা তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

সর্বশেষ নিউজ