২৮, ফেব্রুয়ারি, ২০২১, রোববার

প্রচার-প্রচারণা জমে উঠেছে মাটিরাঙ্গা পৌর নির্বাচন ভোটারদের দ্বারে-দ্বারে প্রার্থীরা

জসিম উদ্দিন জয়নাল,খাগড়াছড়িঃচতুর্থ ধাপে ১৪ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য খাগড়াছড়ি জেলার মাটিরাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচনে গনসংযোগ আর প্রচার-প্রচারণায় জমে উঠেছে মাটিরাঙ্গা পৌরসভার নির্বাচন।পৌরসভার বিভিন্ন পাড়া-মহল্লা এখন মাইকিং, মিছিল স্লোগানমূখর পোষ্ঠারে ছেয়ে গেছে পুরো পৌর শহর চায়ের দোকানে থেকে শুরু করে গ্রামের প্রতি ঘরে ঘরে প্রার্থীরা ভোটারদের দ্বারে-দ্বারে নিজেদের নির্বাচনি ইশতেহার নিয়ে ঘুরছেন, আওয়ামীলীগের দলীয় প্রার্থী বর্তমান মেয়র মো: শামছুল হক, জাতীয়তাবাদী বিএনপির দলীয় প্রার্থী মো:শাহ জালাল কাজল ও স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী এমএম জাহাঙ্গীর আলম ।

মাটিরাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচনে প্রচার-প্রচারনায় কাউন্সিলরা তাদের প্রতিক নিয়ে ভোটারদের বাড়ি বাড়ি ঘুরছেন।নির্বাচনে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ থাকলেও পরিবেশ শান্ত আছে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন।

নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই জমে উঠছে প্রচার-প্রচারণা। বিক্ষিপ্তভাবে বিভিন্ন স্থানে হচ্ছে আচরণবিধি লঙ্ঘন। তবে তা খুব বড় নয় এবং সার্বিকভাবে পরিস্থিতি অনেকটা ভালো থাকায় তা নিয়ে খুব একটা ক্ষোভ নেই ভোটার, প্রার্থী এবং নির্বাচন কর্মকর্তাদের। নির্বাচনে ভোটাররা সৎ, যোগ্য ও দক্ষ লোককে ভোট দেওয়ার কথাই ভাবছেন।

মাটিরাঙ্গা পৌরসভার বাজার ব্যবসায়ী মো:জহিরুল ইসলাম বলেন, সৎ, যোগ্য এবং দক্ষ প্রার্থী যিনি এলাকাকে মাদক,চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসমুক্ত রাখতে পারবেন, সেই প্রার্থীকে তারা ভোট দেবেন বলে জানান।

কাজীপাড়া ৩নং ওয়ার্ডের স্হায়ী বাসিন্দা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের সাবেক জেলা ইউনিটের যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক মো:আবু রাসেল সুমন বলেন,পৌর এলাকার উন্নয়ন মাদকমুক্ত সমাজ গঠনে যে ব্যক্তি ভূমিকা রাখবেন এবং পৌরসভার জনগনের জন্য কাজ করবেন এমন একজন প্রার্থীকে ভোট দেবেন বলে জানান।

মুসলিম পাড়ার মহিলা ভোটার শাহেনা আক্তার বলেন,একজন সৎ শিক্ষিত যোগ্য ব্যক্তি যে ব্যক্তি শুধু মুখে নয়, বাস্তবেও যিনি জনগণের পাশে থাকবেন, তাকেই তারা নির্বাচিত করবেন।

ভোটারদের নানা আশার বাণী শোনানো মেয়র প্রার্থীরা নিজেদেরকে যোগ্য হিসেবে মনে করার পাশাপাশি নির্বাচনে জয়লাভ করার বিষয়েও আশাবাদী।

আওয়ামীলীগের দলীয় মেয়র প্রার্থী বর্তমান মেয়র মো:শামছুল হক, বলেন,পাঁচ বছর পৌরসভার মেয়র ছিলাম মেয়র নির্বাচিত হওয়ার চারমাসের মাথায় মাটিরাঙ্গা পৌরসভাকে গ শ্রেনী থেকে খ শ্রেনীতে উন্নতি করেছি পৌরসভার তেমন উন্নয়ন করতে না পারলে ও পৌর এলাকার মাদকমুক্ত, চাঁদাবাজ,সন্ত্রাসমুক্ত রেখেছি জনগন শান্তিতে ঘুমিয়েছে পাঁচবছর তাই প্রচার-প্রচারণায় আমি জনগনের ভালো সাড়া পাচ্ছি। আমি আশা করি ১৪ফেব্রুয়ারি নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে জয়লাভ করে জনগণের প্রত্যাশা পূরণ করতে পারবো।

বিএনপির দলীয় মেয়র প্রার্থী মো:শাহ জালাল কাজল বলেন, বর্তমানে নির্বাচনের পরিবেশ ভালোনা কারন আমার পৌরসভার বিভিন্ন জায়গার পোষ্ঠার ও কর্মীদের হুমকি দুমকি দিচ্ছে সরকারি শাসক দল ।নির্বাচন কমিশন যদি অবাধ সুষ্ঠ নিরপেক্ষ নির্বাচনের ব্যবস্হা করতে পারে আর সাধারন ভোটাররা যদি ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোটদিতে পারে তাহলে আগামী ১৪ফেব্রুয়ারি ধানের শীষ প্রতীক নির্বাচনে জয়লাভ করবেন।

স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী এম এম জাহাঙ্গীর আলম বলেন, বিভিন্ন স্থানে প্রচার প্রচারণায় তার লোকজনকে সরকার দলীয় নৌকার প্রার্থী হুমকি দুমকি সহ বাধা দেওয়া হচ্ছে। এই বিষয়ে রির্টানিং অফিসার কে মৌখিক ভাবে জানানো হয়েছে। অবাধ-সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে তিনি নির্বাচনে জয়লাভ করবেন।

আগামী ১৪ই ফেব্রুয়ারি চতুর্থ ধাপে পৌরসভা নির্বাচনে মাটিরাঙ্গা পৌরসভার এবারের মোট ভোটার সংখ্যা ১৮ হাজার ৯শ৬৫ জন। তার মধ্যে পুরুষ ভোটার ৯ হাজার ৮শ ৬ জন এবং নারী ভোটার ৯ হাজার ১শ ৬৯ জন বলে জানা যায়। মাটিরাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচনে ৯টি ভোট কেন্দ্রে ৫৫টি বুথে ভোট গ্রহণের কথা রয়েছে বলে জানান খাগড়াছড়ি জেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং অফিসার মো:রাজু আহমেদ ।

মাটিরাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচনের রির্টানিং অফিসার ও জেলা নির্বাচন অফিসার মো. রাজু আহমেদ বলেন,অবাধ সুষ্ঠ নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য নির্বাচন কমিশন আইন-শূঙ্খলা থেকে শুরু করে সব ধরনের উদ্যােগ গ্রহন করেছেন পৌরবাসী সহ সকল প্রার্থীরা যদি নির্বাচন কমিশনকে সার্বিক সহযোগিতা করেন তাহলে একটি অবাধ সুষ্ঠ নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্পন্ন করা সম্ভব বলে মন্তব্য করেন তিনি।এখন পর্যন্ত পরিবেশ শান্ত রয়েছে বলে জানান রির্টানিং অফিসার ও জেলা নির্বাচন অফিসার মো:রাজু আহমেদ।

সর্বশেষ নিউজ