৩, ডিসেম্বর, ২০২১, শুক্রবার

ফিলিস্তিনি মুসলিমদের পক্ষ, ইহুদি এমপিকে পেটাল ইসরায়েলি পুলিশ

১৯৬৭ সালের যুদ্ধে পূর্ব জেরুজালেম দখল করে ইসরায়েল। এটিকে তারা নিজেদের রাজধানী হিসেবে দাবি করে। এজন্য বিভিন্ন সময়ে ইসরায়েলিরা ফিলিস্তিনি ভূমি অধিগ্রহণ করে ইহুদি বসতি স্থাপনের উদ্যোগ নিয়েছে। তবে ফিলিস্তিনিরা চায়, শহরটি তাদের ভবিষ্যৎ রাষ্ট্রের রাজধানী হবে।

ইসরায়েলের এক সংসদ সদস্য (এমপি) পূর্ব জেরুজালেমে ফিলিস্তিনিদের জমি অধিগ্রহণের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে অংশ নিয়ে ইসরায়েলি পুলিশের হাতে ব্যাপক মার খেয়েছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে গত শুক্রবার তাকে মারধরের ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়েছে।

বার্তা সংস্থার এপির তথ্যমতে, ভুক্তভোগীর নাম ওফার কাসিফ। তিনি ইসরায়েলি সংসদ নেসেটে আরব দলগুলোর জোট ‘জয়েন্ট লিস্ট’-এর একমাত্র ইহুদি সদস্য।

ভিডিওতে দেখা যায়, কাসিফকে পুলিশ ঘুষি মারছে, ঘাড় চেপে ধরছে, মাটিতে টেনেহিচড়ে নিয়ে যাচ্ছে। একপর্যায়ে পুলিশের এক কমকর্তা এ সংসদ সদস্যের বুকে হাটুচেপেও বসেন।

পিটুনিতে এমপি কাসিফের চোখ ফুলে ওঠে, শার্ট ছিড়ে ছিন্নভিন্ন হয়ে যায়। জয়েন্ট লিস্টের আরেক এমপি আহমদ তিবি এ ঘটনাকে ‘নির্দয় হামলা’ উল্লেখ করে সংসদীয় সুরক্ষার লঙ্ঘন বলে অভিহিত করেছেন।

তবে ইসরায়েলি পুলিশ দাবি করেছে, এমপি কাসিফই তাদের ওপর আক্রমণ করেছিলেন। একারণে পুলিশ ‘সহনীয় শক্তি’ প্রয়োগ করেছে এবং পরিচয় জানার পরপরই তাকে ছেড়ে দিয়েছে।

এ ঘটনায় তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন জেরুজালেম পুলিশের প্রধান ডোরন তুর্গম্যান।

সর্বশেষ নিউজ