২০, মে, ২০২২, শুক্রবার

ফিলিস্তিনি সাংবাদিক শিরিনের মরদেহ চার্চে নেওয়ার সময় সংঘর্ষ

ফিলিস্তিনের সাংবাদিক শিরিন আবু আকলেহকে শুক্রবার জেরুজালেমের একটি খ্রিস্টান কবরস্থানে সমাহিত করা হয়েছে।

এর আগে তার মরদেহ নেওয়া হয় ওল্ড জেরুজালেমের একটি চার্চে। সেখানে তার অন্তষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন হয়।

ফিলিস্তিনি এ সাংবাদিকের মরদেহ চার্চে নেওয়ার পথে দখলদার ইসরাইলি পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ বাধে বিক্ষোভকারীদের।

অনেকেই তার কফিন বহন করতে চেয়েছিলেন।

শিরিনকে যেই চার্চে নেওয়া হয় সেখানে ফিলিস্তিনের পতাকা হাতে উপস্থিত হন অনেকে। ফিলিস্তিনের পতাকা নিয়ে আসায় তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালানো হয়।
এদিকে বুধবার জেনিনে দখলদার ইসরাইলি বাহিনীর একটি কথিত অভিযানে সংবাদ সংগ্রহ করতে যান শিরিন আবু আকলেহ ও অন্যান্য সাংবাদিকরা।

এ সময় তার মুখে এসে আঘাত করে একটি বুলেট। সেই একটি বুলেটের আঘাতেই মৃত্যু হয় তার।

শিরিন ১৯৯৭ সাল থেকে আল জাজিরার হয়ে কাজ করেছেন। তিনি তার রিপোর্টে তুলে আনার চেষ্টা করেছেন ফিলিস্তিনের ওপর ইসরাইলের নিগ্রহের বিষয়টি।

দাবি করা হচ্ছে, ফিলিস্তিনি এ সাংবাদিককে টার্গেট করে গুলি করে ইসরাইলি স্নাইপার।

শিরিনের মুখে যখন গুলি লাগে তখন তিনি হেলমেট ও প্রেস লেখা সংবলিত জ্যাকেট পড়ে ছিলেন।

সূত্র: আল জাজিরা

সর্বশেষ নিউজ