২০, মে, ২০২২, শুক্রবার

বরিশালে বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে কুপিয়ে হত্যা

সংবাদদাতা, বরিশাল

গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে নগরের এয়ারপোর্ট থানার বাঘিয়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তির নাম দিপু হালদার (৪০)। তিনি পেশায় রাজমিস্ত্রি ও ওই এলাকার বীর মুক্তিযোদ্ধা রমেন্দ্রনাথ হালদারের ছেলে। দিপুর ওপর হামলাকারী ডেভিড মিস্ত্রি কুডুকে স্থানীয়রা আটক করে পুলিশের হাতে দিয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দা মাসুম আহ‌ম্মেদ ও সুশান্ত বিশ্বাসের বক্তব্য, দিপুর ওপর হামলাকারী কুডু একজন মাদকাসক্ত ব্যক্তি। তিনি বাঘিয়া শ্রী শ্রী কালিমাতা মন্দির এলাকার বাসিন্দা। গতকাল সকাল ৮টার দিকে কুডু এলাকার একটি চায়ের দোকানে গিয়ে সবাইকে গালাগাল করতে থাকেন। এ সময় দিপু হালদার তাকে ওই দোকান থেকে চলে যেতে বলেন।

তারা বলেন, এতে ক্ষিপ্ত হয়ে দিপু হালদারকে কোপানোর হুমকি দেন কুডু। পরে রাত ৯টার দিকে দিপুকে একা পেয়ে তাকে ছুরি দিয়ে পেটে আঘাত করেন তিনি। এতে দিপুর নাড়িভুঁড়ি বেরিয়ে আসে। পরে আহত অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

দিপু হালদারের ভাই সজল হালদারের ধারণা, এই হত্যাকাণ্ডে কুডু ছাড়ারও আরও অনেকে জড়িত আছেন।

শের-ই-বাংলা মেডিকেলের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মোফাজ্জেল আহম্মেদ বলেন, ‘ছুরিকাঘাতের পর অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে দিপুর মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করছি। ময়দাতদন্তের পর মূল কারণ জানা যাবে।’

বরিশাল এয়ারপোর্ট থানার অতিরিক্ত পু‌লিশ ক‌মিশনার শেখ মোহাম্মদ সে‌লিম জানান, এ ঘটনায় কুডুকে আটক করা হয়েছে ও মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে। তিনি বলেন, ‘কুডুকেও আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য দিপুর মরদেহ শের-ই-বাংলা মেডিকেলের মর্গে পাঠানো হয়েছে।’

সর্বশেষ নিউজ