৭, মার্চ, ২০২১, রোববার

বিদেশে পাঠানোর নামে ‘অর্থ আত্মসাৎ’

স্টাফ রিপোর্টার: বগুড়া জেলার দুপচাচিয়া উপজেলার, খানপুর গ্রাম, পোস্ট চৌমহনী বাজার, আদম ব্যবসায়ী মাহাবুবুর রহমান , পিতা-পেয়ার আলী, তার পাসপোর্ট নং BE 0977948, মাহাবুবুর রহমান এর বিরুদ্ধে বিদেশে লোক পাঠানোর নামে লাখ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ভুক্তভোগী জহিরুল ইসলাম এর লিখিত অভিযোগে জানা যায়, দীর্ঘ দিনের সৌদি আরবে বন্ধু হিসাবে সু-পরিচিত হওয়ায় সেই সুবাদে জনাব মাহাবুবুর রহমান ১ বৎসর পূর্বে জেদ্দায় পার্শবতী রুমে থাকা অবস্থায়
তার সম্পর্ক গড়ে উঠে। উক্ত সম্পর্কের জের ধরে তাহার ফ্যমিলী একামা/ভিসা রিনিউ করার জন্য পর্যাপ্ত পরিমান সৌদি রিয়াল না থাকায় জহিরুল ইসলামের নিকট হইতে ৩০,০০০(ত্রিশ হাজার) সৌদি রিয়াল জরুরী প্রয়োজন নগদ ও ব্যাংকের মাধ্যমে সৌদি রিয়াল ও বাংলাদেশী মদায় ধার নিয়ে থাকে। ধার নেওয়ার পর কিছুদিন পরে জানতে পারে, মাহাবুবুর রহমান ফাইনাল এক্সিজিটে দেশে চলে যায়।

আরও যানা গেছে, বিদেশ নেওয়ার নামে মাহাবুবুর রহমানের ১৬ জনের অর্থ আত্মসাৎ করেছে! ২০২০ সালে ফেব্রুয়ারির ২৬ তারিখে বাংলাদেশ থেকে মাহাবুবুর রহমান ১৬ জন লোক নিয়ে সৌদি আরবে পৌছার পরে ১৬ জন লোকের অর্থ আত্মসাৎ করে ভিসা হুরুপ ( কেন্সেল) করে ।

যানা গেছে, ১৬ জন ব্যক্তিকে সৌদি আরবে নেওয়ার জন্য প্রত্যেকের কাছ থেকে ৪ লাখ ৫০ হাজার করে টাকা নিয়েছিল মাহাবুবুর রহমান ।

এই বিষয়ে , জহিরুল ইসলাম বগুড়া, জেলা প্রশাসক, বরাবর, একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছে।

সর্বশেষ নিউজ