২৩, সেপ্টেম্বর, ২০২১, বৃহস্পতিবার

ভিনিসিউসের গোলে কোনমতে হার এড়ালো রিয়াল

জয়ের ধারা ধরে রাখতে পারল না রিয়াল মাদ্রিদ। পারল না আতলেতিকো মাদ্রিদের ওপর চাপ বাড়াতে। তবে, রিয়াল সোসিয়েদাদের বিপক্ষে হারতে বসা ম্যাচে শেষের গোলে মূল্যবান এক পয়েন্ট পাওয়াও চ্যাম্পিয়নদের জন্য কম স্বস্তির নয়।

আলফ্রেদো দি স্তেফানো স্টেডিয়ামে সোমবার রাতে লা লিগার ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র হয়েছে। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে পোর্তুর গোলে রিয়াল পিছিয়ে পড়ার পর সমতা টানেন মাদ্রিদের দলটির হয়ে শততম ম্যাচ খেলতে নামা ভিনিসিউস জুনিয়র।

আগের তিন রাউন্ডে জয়ের আত্মবিশ্বাস নিয়ে মাঠে নামা সোসিয়েদাদ শুরু করে বেশ ভালো। তাদের আক্রমণগুলোও ছিল তুলনামূলক গোছালো। তবে প্রথম ২০ মিনিটে কেউই খুব ভালো সুযোগ তৈরি করতে পারেনি।

রিয়াল অবশ্য নিজেদের দুর্ভাগা মনে করতেই পারে। প্রথমার্ধেই অন্তত দুবার এগিয়ে যেতে পারত তারা। একবার মারিয়ানোর শট ফিরে আসে পোস্টে লেগে, ফিরতি বলে গোল করতে পারেননি আসেন্সিও। সেখান থেকেই আবার কর্নার পায়, এবার হেড করেন ভারান। কিন্তু সেটাও ফিরে আসে পোস্টে লেগে। মিনিট দুয়েকের মধ্যে দুবার এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ হারায় রিয়াল। প্রথমার্ধে প্রতিপক্ষের গোলে মাত্র একটা শট থাকার পরও আধিপত্য ছিল রিয়ালেরই।

দ্বিতীয়ার্ধে অনেকটা খেলার ধারার বিপরীতেই এগিয়ে যায় সোসিয়েদাদ। দুর্দান্ত একটা হেডে পর্তু গোল করেন হতভম্ব করে দেন রিয়ালকে। নাচো মনরিয়েলের ক্রসে দারুণ কোনাকুনি হেডে গোলটি করেন পোর্তু। বল ক্রসবারে লেগে জালে জড়ায়। জায়গায় দাঁড়িয়ে দেখেন আগের তিন ম্যাচে জাল অক্ষত রাখা থিবো কোর্তোয়া।

এবারের লিগে সোসিয়েদাদের হয়ে এই নিয়ে পোর্তুর লক্ষ্যে থাকা সাতটি শট বা হেডের সবকটিই পেল সাফল্যের দেখা! রিয়ালের বিপক্ষে তার এটি তৃতীয় গোল। আগের দুই উপলক্ষে জয়ের স্বাদ পেয়েছিলেন এই স্প্যানিশ অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার, জিরোনার হয়ে। এর এক মিনিট পরেই অবশ্য ব্যবধান দ্বিগুণ করতে পারত সোসিয়েদাদ। দারুণ গতিতে কাউন্টার অ্যাটাকে গিয়ে গোলের সামনে থাকা একেবারে ফ্রি থাকা অ্যালেকজান্ডার ইসাককে দারুণ পাস দেন পর্তু। কিন্তু ইসাক বলটি জালে জড়াতে ব্যর্থ হন।

এরপরও চেষ্টা করেছিল রিয়াল গোল করার, আট মিনিট পর কর্নারে কাসেমিরোর হেড পোস্ট ঘেঁষে বেরিয়ে যায়। ক্রুসের শট একটুর জন্য চলে গেছে বাইরে দিয়ে। ওদিকে মদ্রিচ সোসিয়েদাদ গোলরক্ষককে পরীক্ষায় ফেলেও গোল করতে পারেননি। চাপ ধরে রাখা রিয়ালের হতাশা আরও বাড়ে ৮৪তম মিনিটে; বদলি নামা রদ্রিগোর শটও হয় লক্ষ্যভ্রষ্ট।

শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত সময়ের এক মিনিট বাকি থাকতে স্বস্তি ফেরে রিয়াল শিবিরে। ফেদে ভালভেরদের ব্যাকহিলে বল পেয়ে দারুণ কোনাকুনি পাস বাড়ান ভাসকেস। ডান পায়ের শটে ঠিকানা খুঁজে নেন বদলি নামা ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড ভিনিসিউস।

টানা চার জয়ের পর পয়েন্ট হারানোয় দুইয়ে ফিরতে পারল না রিয়াল। ২৫ ম্যাচে ১৬ জয় ও পাঁচ ড্রয়ে তাদের পয়েন্ট ৫৩। সমান পয়েন্ট নিয়ে গোলসংখ্যায় এগিয়ে থেকে দুইয়ে আছে বার্সেলোনা। এক ম্যাচ কম খেলা আতলেতিকো মাদ্রিদ ৫৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে। তাদের সমান ২৪ ম্যাচে ৪৮ পয়েন্ট নিয়ে চার নম্বরে সেভিয়া। আর ২৫ ম্যাচে ৪২ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচ নম্বরে সোসিয়েদাদ।

যদিও পরের সপ্তাহেই মাদ্রিদ ডার্বি, রিয়াল তখন সুযোগ পাবে ব্যবধান আরেকটু কমিয়ে আনার।

সর্বশেষ নিউজ