১, ডিসেম্বর, ২০২১, বুধবার

মরিচে লাঘব হবে ক্যান্সার

খাবার সময় আলাদা করে মরিচ নিয়ে বসার অভ্যাস অনেকেরই রয়েছে। অতিরিক্ত ঝাল খেলে বুক জ্বালা করে, গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা হয় এসব কথা বেশ প্রচলিত। এবার এসব ধারনা ঝেড়ে ফেলুন। ঝাল খেতে পছন্দ করা মানুষের জন্য আছে স্বস্তির খবর। ঝাল খেলে ক্যান্সার ও কার্ডিওভাসকুলার ডিডিজে আক্রান্ত হবার ঝুকি কয়েকগুণ কমে যায়। আমেরিকার হার্ট অ্যাসোসিশনের সাইন্টিফিক সেশনের এক গবেষণায় উঠে এসেছে সব তথ্য।

আমেরিকা, চীন, ইতালি ও ইরানের প্রায় ৫ লাখ ৭০ হাজার মানুষের উপর এই গবেষণা চালানো হয়। এতে তাদের স্বাস্থ্য ও খাদ্যাভাস সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ করা হয়। এতে দেখা যায়, যাদের প্রতিদিনকার খাদ্য তালিকায় মরিচ থাকে, তাদের কার্ডিও ভাসকুলার ডিজিজে আক্রান্ত হবার আশঙ্কা ২৬ শতাংশ কম। আর ক্যান্সারের সম্ভবনা ২৩ শতাংশ কম।

এ বিষয়ে আমেরিকার ওহায়োর ক্লিভল্যান্ড ক্লিনিক হার্টের কার্ডিওলজিস্ট বো জু জানান, মানুষের খাদ্যাভাস আসলে সার্বিক স্বস্থ্যের উপর প্রভাব ফেলে। আমরা দেখে খুব অবাক হয়েছিলাম যে, মরিচ সব ধরণের রোগে আক্রান্ত হবার সম্ভবনা কমায়। আর কার্ডিওভাসকুলার ডিজিজ ও ক্যান্সার রোধে এর কার্যকারীতা লক্ষ্যনীয়।

তবে প্রতিদিন কতগুলো মরিচ খেলে এই ধরনের উপকার পাওয়া যাবে তা উল্লেখ করা হয়নি।

সর্বশেষ নিউজ