২১, জানুয়ারী, ২০২২, শুক্রবার

মহানবী (সা.)’কে অপমান : ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কারের দাবিতে উত্তাল পাকিস্তান

ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কারের দাবিতে উত্তাল হয়ে উঠেছে পাকিস্তান। সোমবার দেশটির ধর্ম অবমাননার বিরোধিতা করা একটি ইসলামিস্ট পার্টি তেহরিক-ই-লাব্বায়েক পাকিস্তানের (টিএলপি) নেতা সাদ রিজভীকে গ্রেপ্তার করা হয়। রিজভীকে পাকিস্তানে ফরাসি রাষ্ট্রদূতের বহিষ্কারের দাবি জানিয়ে আসছিলেন।

পাকিস্তানের ডানপন্থী টিএলপি নেতার দাবি হলো- শার্লি এবদোতে মহানবী (সা.) এর কার্টুন প্রকাশ করার জন্য ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতকে পাকিস্তান থেকে বহিষ্কার করতে হবে।

তিনি আরো দাবি করেন, পাকিস্তান সরকার তাকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল যে, ২০ এপ্রিলের মধ্যে ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার করা হবে। সেই দাবি নিয়ে সোচ্চার হতেই রিজভিকে গ্রেপ্তার করে সরকার। তারই প্রতিবাদে বিক্ষোভ হচ্ছে পাকিস্তানে।

জানা গেছে, রিজভি আটক হওয়ার পর লাহোর, করাচি, ইসলামাবাদে বিক্ষোভ করতে থাকেন তার দলের কর্মী-সমর্থকরা। রিজভির সমর্থকদের দেখা যায়, লাঠি হাতে রাস্তায় নেমে পড়েছে। অনেক জায়গায় তারা রাস্তা অবরোধ করে রেখেছে।

টিএলপি কর্মী-সমর্থকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে। বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করে দিতে কাঁদানে গ্যাস ব্যবহার করেছে পুলিশ।

টিএলপি সমর্থকদের দাবি, পাকিস্তানে ধর্মীয়ভাবে নিন্দা আইনত অপরাধ। শার্লি এবদো মহানবী (সা.) এর কার্টুন ছাপিয়ে অপরাধ করেছে। ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এ নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন। সে কারণে ফ্রান্সের সঙ্গে সম্পর্ক রাখা যাবে না। তাদের নেতাকে মুক্তি দিতে হবে।

টিএলপি আরো জানিয়েছে, ২০ এপ্রিলের মধ্যে ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতকে পাকিস্তান থেকে বহিষ্কার করা না হলে বিক্ষোভ অব্যাহত থাকবে।

সরকারের দাবি, তারা প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল এ বছরের ২০ এপ্রিলের মধ্যে পার্লামেন্টে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হবে। সরকারের কথা মানতে রাজি নয় টিএলপি।

সূত্র: ডয়চে ভেলে

সর্বশেষ নিউজ