২৮, ফেব্রুয়ারি, ২০২১, রোববার

মিয়ানমারে ২৩ হাজারের বেশি কারাবন্দিকে সাধারণ ক্ষমা

মিয়ানমারের সামরিক সরকার ২৩ হাজারের বেশি কারাবন্দিকে শুক্রবার সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করেছে।

ক্ষমতাচ্যুত স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চিসহ নির্বাচনী কর্মকর্তাদের ধরপাকড়ের সপ্তাহখানেক পর জান্তার কাছ থেকে এই ক্ষমার ঘোষণা এসেছে।

রাষ্ট্রীয টেলিভিশন গ্লোবাল নিউ লাইট বলছে, ২৩ হাজার ৩১৪ কারাবন্দির সাজা মওকুফ করে দিয়েছে রাষ্ট্রীয় প্রশাসন কাউন্সিল। এসব বন্দিকে তাদের কারাদণ্ডের বাকি সাজা ভোগ করতে হবে না। তারা মুক্ত থাকবেন।

পাশাপাশি ৫৫ বিদেশি বন্দিকে ছেড়ে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েও একটি বিবৃতি এসেছে। দুটি আদেশেই জান্তা প্রধান মিন অং হ্লাইংয়ের সই রয়েছে।

কারাবন্দিদের মুক্তি নিয়ে এর বাইরে কোনো তথ্য দেওয়া হয়নি। গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনার প্রতিজ্ঞায় টানা ষষ্ঠদিনের মতো বৃহস্পতিবার বিক্ষোভ হয়েছে মিয়ানমারজুড়ে।

রাজধানী নেপিডোর রাস্তায় শত শত প্রতিবাদকারী লাইন ধরে দাঁড়িয়ে জান্তাবিরোধী স্লোগান দিয়েছে, সু চির সমর্থনে লেখা প্ল্যাকার্ড নিয়ে বিক্ষোভ করেছে। অভ্যুত্থান রক্তপাতহীন হলেও গণবিক্ষোভ দমনে বলপ্রয়োগ শুরু করেছে জান্তা।

মঙ্গলবার এক নারী গুলিবিদ্ধ হওয়ার পরও বিক্ষোভ দমেনি। ওইদিনই প্রথম বিক্ষোভে রক্ত ঝরেছে।

নেপিডোতে সেদিন বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে মিয়ানমার পুলিশ প্রথমে জলকামান এবং পরে রাবার বুলেট ব্যবহার করে।

যুক্তরাষ্ট্র ও জাতিসংঘ সামরিক জান্তার শক্তি প্রয়োগের নিন্দা করেছে।

সর্বশেষ নিউজ