৭, জুলাই, ২০২২, বৃহস্পতিবার

মুন্সীগঞ্জে চাঁদা না দেয়ায় মেরে দাত ভেঙ্গে দেয়ার অভিযোগ

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধিঃ মুন্সীগঞ্জের চরাঞ্চলের চাঁদা না দেয়ায় বোন জামাতা আতব আলী সরকার (৬০) এর দাত ভেঙ্গের দেয়ার অভিযোগ উঠেছে সমন্দি মাহফুজ ও শ্যালক আক্তার বেপারীর বিরুদ্ধে । এসময় বাড়ীঘরে ভাংচুর চালিয়ে লুটপাট করার অভিযোগও উঠেছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে বোন হাসিনা বেগম,ভাগীনা সাইফুল সরকার (৩০), হাবিব সরকার (২৪)। সোমবার সন্ধ্যায় ও বুধবার সকালে সদর উপজেলার চরাঞ্চলের আধারা ইউনিয়নের ষোলারচর গ্রামে দুই দফা এই মারধর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে। মারধরের আহতদের মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে মোতায়েন করা হয়েছে অতিরিক্ত পুলিশ।

আহত আতব আলী বলেন,আসন্ন ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের লক্ষে অস্ত্র ও ককটেল তৈরির সরাঞ্জাম যোগান দেয়ার লক্ষে আমার সমন্দি মাহফুজ বেপারী,শ্যালক আক্তার বেপারী,তাদের ভাগীনা রমজান বেপারীসহ তাদের সহযোগী ডালিম বেপারী সাগর বেপারী,কালাম ভূইয়া,হাসান দেওয়ান, রিয়াজ দেওয়ান গংরা আমার থেকে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে। দাবীকৃত চাঁদা দিতে অস্কিকার করলে গত সোমবার আমার বাড়ীতে হামলা চালিয়ে আমাদের মারধরে করে ঘরে ভিতরের আসভাবপত্র ভাংচুর চালিয় ঘরে থাকা নগদ ৯ লাট টাকা,১৬ ভড়ি স্বর্ণ,একটি ল্যাপটপ ও দুটি মোবাইল ফোন লুটকরে নিয়ে যায়।
সেই ঘটনার বিচার চেয়ে সদর থানায় অভিযোগ করলে বুধবার (২৫ আগষ্ট) সকালে দায়েরকৃত অভিযোগ তুলে নেয়ার হুমকি দিয়ে মারধর করে। এসময় আমার ৩ টি দাত ভেঙ্গে দেয় সন্ত্রাসীরা। পরে আমার স্ত্রী ও দুই সন্তানকে মেরে রক্ততজখম করে। বর্তমানে আমি ও আমার পরিবারের সদস্যরা চরম আতঙ্কেদিন যাপন করছি।

এসব অভিযোগের বিষয়ে জানতে অভিযুক্তদের সাথে যোগাযোগ করে তাদের পাওয়া যায়নি।

এব্যাপারে অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই সুকান্ত জানান,এঘটনায় একটি লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। তদন্ত শেষে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সর্বশেষ নিউজ