২৪, এপ্রিল, ২০২১, শনিবার

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে স্বামী-স্ত্রী ও শ্যালিকা খুন

উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে স্বামী-স্ত্রী সহ একই ঘরের তিনজন নিহত হয়েছে। পারিবারিক কলহের জের ধরে তারা খুন হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে জানিয়েছে পুলিশ।

শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে উখিয়ার কুতুপালং ক্যাম্পে এ ঘটনা ঘটেছে বলে নিশ্চিত করেছেন কুতুপালং ক্যাম্পের ইনচার্জ মো. রাশেদুল ইসলাম।

নিহত রোহিঙ্গারা হলেন, কুতুপালং মেগা ক্যাম্পের ২/ইষ্ট ক্যাম্পের ডি-৭ ব্লকে আলী হোসেনের ছেলে নুরুল ইসলাম (৩২), তার স্ত্রী মেয়ে মরিয়ম বেগম (২৬) ও নুরুল ইসলামের শ্যালিকা হালিমা খাতুন (২২)।

পুলিশ বলছে, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে পারিবারিক কলহের জের ধরে প্রথমে নুর ইসলাম তার স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা করে। এসময় বোনকে রক্ষা করতে এগিয়ে আসলে শ্যালিকাকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এতে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে সে নিজেই আত্মহত্যা করে। তবে তার শরীরেও বিভিন্ন আঘাত দেখা গেছে। সে একজন মাদকসেবী ছিল বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। ওই দম্পতির সংসারে ৩ টি শিশুও রয়েছে।

কুতুপালং ক্যাম্পের ইনচার্জ মো. রাশেদুল ইসলাম বলেন, পারিবারিক কলহের জের ধরে স্বামী, স্ত্রী ও শ্যালিকাসহ তিনজন খুন হয়েছে। মৃতদেহ উদ্ধারে কার্যক্রম চলছে।

সর্বশেষ নিউজ