২৮, অক্টোবর, ২০২১, বৃহস্পতিবার

শরীয়তপুরে চার্জসীটের বিরুদ্ধে বাদী পক্ষের মানব বন্ধন

শরীয়তপুর প্রতিনিধি : শরীয়তপুরের ডামুড্যায় ইসলাম পুর ইউনিয়নের দক্ষিন পাড়া গ্রামের ফেইস বুক লাইভে এসে স্ত্রী আমেনা বেগম (৩৫) কে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে স্বামী নজরুল ইমলাম মাদবর। এ মামলায়৫ জনের মধ্যে ৪ জন আসামীকে বাদ দিয়ে অভিযোগ পত্র দাখিল করার প্রতিবাদে আজ মঙ্গলবার সকালে শরীয়তপুর জেলা প্রশাসকের কার্যলয়ের সামনে এক মানব বন্ধন করেছে বাদী ও এলাকাবাসী। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ইসলাম পুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়াম্যান ও আওয়ামীলীগের সভাপতি আবুল হোসেন মোল্লা, ইউপি সদস্য আলতাফ হোসেন বেপারী,নিহতের বড় ভাই আমিন মাদবর,মামলার বাদী ভাই সুলতান মাদবর,স্থানীয় আলমগীর কবিরাজ, ইউপি সদস্য আমেনা বেগম,রিয়াদ মাল,বোরহান মাদবর,চান্দু মুন্সি,রেহানা পারভিন,পুতুলি বেগম প্রমুখ।

মামলার তদন্ত কারী কর্মকর্তা ডামুড্যা থানার এস আই সফিকুর রহমান বলেন, ঘরের ভিতরে সিটকীনি দেওয়া অবস্থায় ফেইস বুক লাইভে এসে তার স¦ামী কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে। আমরা গিয়ে সিটকীনি দেওয়া অবস্থায় আসামী ও ভিকটিম কে পাই। এর পর ময়না তদন্তের জন্য তার লাশ শরীয়তপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠাই। আসামী নজরুল ইসলাম মাদবরকে কোর্টে প্রেরন করি। সঠিক ভাবে তদন্ত করে এবং সিনিয়র স্যারদের সাথে কথা বলে অভিযোাগপত্র দাখিল করি।

উল্লেখ্য, গত ১৬ ফেব্রুয়ারী শরীয়তপুরের ডামুড্যায় ইসলাম পুর ইউনিয়নের দক্ষিন পাড়া গ্রামের মালয়েশিয়া প্রবাসী নজরল ইসলাম মাদবর পারিবারিক কলহের জের ধরে ফেইস বুক লাইভে এসে স্ত্রী আমেনাকে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে তার স্বামী নজরুল ইসলাম মাদবর। নিহতের ছোট ভাই সুলতান মাদবর বাদী হয়ে স্বামী নজরুল ইসলাম মাদবর, ছোট ভাই সজল মাদবর, ভাবী মাজেদা বেগম, ভাবী রাজিয়া বেগম ও বোন শাহানা বেগমকে আসামী করে ডামুড্যা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে।

সর্বশেষ নিউজ