২৭, অক্টোবর, ২০২১, বুধবার

শ্রীনগর ছনবাড়িতে মাছের মেলা

মোহন মোড়ল,শ্রীনগর (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি: ফরমালিনমুক্ত তাজা মাছের মেলায় শত শত ক্রেতা বিক্রেতাদের হাকডাকে জমে উঠে ঐতিহ্যবাহী শ্রীনগর ছনবাড়ি মৎস্য আড়ত। দৈনিক লাখ লাখ টাকার বিভিন্ন জাতের দেশী জাতের মাছ কেনা-বেচা হয় এখানে। ভোর ৪টা থেকে সকাল সাড়ে ৫টার মধ্যে আড়তে মাছ বিকিকিনির হৈ-চৈ থেমে যায়। সূর্য উঠার আগ মুহুত্বেই মৎস্য আড়তটি জনশূণ্য হয়ে যায়। মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলার ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়ের ছনবাড়ি ওভারব্রিজের পশ্চিম পাশে মৎস্য আড়তে এমনই চিত্র লক্ষ্য করা গেছে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, ছনবাড়ি শ্রীনগর ফিলিং স্টেশন সংলগ্ন শ্রীনগর ছনবাড়ি মৎস্য আড়তটিতে ভোরের আধাঁরে মাছের মেলা বসছে। দৈনিক প্রায় শত শত মৎস্য ব্যবসায়ী, পাইকার ও জেলের সমাগম ঘটে এখানে। বিক্রি হচ্ছে মণে মণে নানা প্রজাতির দেশী সব তাজা মাছ। এখানে পাওয়া যাচ্ছে আড়িয়াল বিলসহ উপজেলার বিভিন্ন পুকুরের মাছ। লক্ষ্য করা গেছে, শোল, গজার, রুই, কাতল, কৈ, শিং, বোয়াল, আইড়, চিতলসহ দেশী জাতের ছোট বড় এসব মাছ বিক্রিতে আড়তদারের হাকডাক। বিক্রির ডাক শুরু হলে মুহুত্বের মধ্যে প্রতিযোগিতামূলকভাবে পাইকাররা মাছ কিনে নিচ্ছেন। ছনবাড়ির মৎস্য আড়তটি দেশী মাছের জন্য দিনদিন মানুষের কাছে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে।

খোঁজ খবর নিয়ে জানা গেছে, প্রায় ৫০ বছর আগে স্থানীয় কয়েকজন আড়তদারের মাধ্যমে শুরু হয় আড়টির যাত্রা। বর্তমানে আড়তটিতে ২০ থেকে ২৫ জন পেশাদারী আড়তদার আছেন। দৈনিক মাছ কেনা বেচা হচ্ছে প্রায় ৮-৯ লাখ টাকা। জেলের মাছ বিক্রি শতকরা ৫ পারসেন্ট টাকা নিয়ে থাকেন আড়তদার। প্রায় শতাধিক মৎস্য শ্রমিক আড়তে কাজ করেন। কয়েক ঘন্টা কাজের বিনীময়ে শ্রমিকরা বাড়তি আয় করতে পারছেন।

স্থানীয়রা জানায়, বিখ্যাত আড়িয়াল বিলের ডাঙ্গা-দিঘী ও গ্রামের বিভিন্ন পুকুরের মাছ নিয়ে আসে জেলেরা। আড়তে পাইকারের পাশাপাশি অত্র এলাকাবাসীও তাদের পছন্দের সব মাছ ক্রয় করতে পারছেন। এখানে তুলনামূলকভাবে কিছুটা কম দামে মাছ পাওয়া যায়।

শ্রীনগর ছনবাড়ি মৎস্য আড়তের একতা মৎস্য আড়তদার দীলিপ জানায়, উপজেলার বিভিন্ন ডাঙ্গা, দিঘী ও পুকুরের মাছ নিয়ে আসে জেলেরা। এখানে ফরমালিন মুক্ত তাজা দেশী জাতের সব ধরনের মাছ পাওয়া যায়। প্রায় ৫০ বছর ধরে ছনবাড়ি মৎস্য আড়তটি সুনামের সাথে দীর্ঘদিনের ঐতিহ্য বহন করে আসছে। জেলেরা কাঙ্কিত মূল্যে তাদের মাছ বিক্রি করতে পারছেন।

সর্বশেষ নিউজ