binary options bullet ex4 binary options strategies resources best binary option indicator 2020 organic tech llc binary options algo paper trading platform bitcoin trading on blogspot ameritrade advanced trading platform is investing in bitcoin legal optionshouse virtual trading platform bitcoin trading business plan bitcoin trading on discord binary options trading strategy by pascal pierre zambou bittrex crypto trading binary options martingale spreadsheet binary option system reviews how to invest in bitcoin in canada reddit how much can you make day trading bitcoin billykay binary options edge youtube first bitcoin trading app in india personal finance options trading why is everyone investing in bitcoin is this a good time to invest in bitcoin pola candlestick binary option algorithmic trading platform strategies what is the best trading platform in the us recovery formula scam how to properly invest in bitcoin cryptocurrency trading crypto trader binary options robot usa binary options trading leads bitcoin trading pyramid scheme forex trading in bitcoin should you invest in bitcoin right now bitcoin investment trust approval news robinhood free crypto trading invest bitcoin.com.br crypto trading with algorithms binary option legal in malaysia best.platform for day trading crypto reddit binary trade platform similar to iq option where can i trading bitcoin in usa best binary options broker in australia bitcoin trading url binary options robot millionaire exmo trading platform bitcoin trading new yord times binary options 1minutes bitcoin investment app in india best stock trading platform bitcoin vs bitcoin cash investment https greentradertax.com tax-treatment-for-nadex-binary-options demo binary options united states close option binary ai based bitcoin trading if you invested 100 in bitcoin 7 years ago should you invest in bitcoin mining binary options strategy pdf colmex trading platform review crypto trading suspended amoki cloud trading platform
৬, মে, ২০২১, বৃহস্পতিবার

সর্বাত্মক লকডাউনে যা করা যাবে, যা করা যাবে না

করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যু কিছুতেই কমছে না। বরং প্রতিদিনই দীর্ঘ হচ্ছে লাশের সারি। প্রতিদিনই হাজার হাজার মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ঘাড় নুইয়ে দিচ্ছে। হাজারো মানুষ আক্রান্ত হলেও প্রয়োজনের তুলনায় কোভিড-১৯ হাসপাতাল, ভেন্টিলেশন, অক্সিজেন কিংবা আইসিইউ খুবই অপ্রতুল। হাসপাতালের দ্বারে দ্বারে ঘুরে মানুষ চিকিৎসা পাচ্ছে না। দিনের পর দিন ঘুরেও সাধারণ আক্রান্ত রোগীরা হাসপাতালে বেড পাচ্ছে না। এই মহামারি পরিস্থিতি মোকাবিলায় ৭ দিনের লকডাউনের পর এবার সারা দেশে সর্বাত্মক লকডাউন জারি করেছে সরকার।

সোমবার (১২ এপ্রিল) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে জারি করা এ সংক্রান্ত অফিস আদেশে বলা হয়, ১৪ এপ্রিল সকাল ৬টা থেকে ২১ এপ্রিল মধ্যরাত পর্যন্ত সারা দেশে সর্বাত্মক লকডাউন চলবে। একইসঙ্গে লকডাউনের দিনগুলোর জন্য ১৩ দফা বিধিনিষেধও জারি করা হয়েছে।

সর্বাত্মক লকডাউনে যা করা যাবে, যা করা যাবে না-
১. সব সরকারি, বেসরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও বেসরকারি অফিস, আর্থিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে। প্রতিষ্ঠানের সব কর্মকর্তা-কর্মচারী নিজ নিজ কর্মস্থলে অবস্থান করবেন। তবে বিমান, সমুদ্র, নৌ ও স্থল বন্দর এবং তৎসংশ্লিষ্ট অফিসগুলো এ নিষেধাজ্ঞার আওতামুক্ত থাকবে।

২. বাংলাদেশ সুপ্রিম কোট আদালতগুলোর জন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশনা জারি করবে।

৩. সব ধরনের পরিবহন (সড়ক, নৌ, অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক ফ্লাইট) বন্ধ থাকবে। তবে পণ্য পরিবহন, উৎপাদন ব্যবস্থা ও জরুরি সেবাদানের ক্ষেত্রে এ আদেশ প্রযোজ্য হবে না।

৪. শিল্প-কারখানাগুলো স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণপূর্বক নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় চালু থাকবে। তবে শ্রমিকদের স্ব স্ব প্রতিষ্ঠান থেকে নিজস্ব পরিবহন ব্যবস্থাপনায় আনা-নেয়া নিশ্চিত করতে হবে।

৫. আইনশৃঙ্খলা ও জরুরি পরিষেবা, যেমন- কৃষি উপকরণ (সার, বীজ, কীটনাশক, কৃষি যন্ত্রপাত্রি ইত্যাদি), খাদ্যশস্য ও খাদ্যদ্রব্য পবিরহন, ত্রাণ বিতরণ, স্বাস্থ্যসেবা, কোভিড-১৯ টিকা প্রদান, বিদ্যুৎ, পানি, গ্যাস-জ্বালানি, ফায়ার সার্ভিস, বন্দরগুলোর (স্থল, নদী ও সমুদ্রবন্দর) কার্যক্রম, টেলিফোন ও ইন্টারনেট (সরকারি-বেসরকারি), গণমাধ্যম (প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া), বেসরকারি নিরাপত্তা ব্যবস্থা, ডাক সেবাসহ অন্যান্য জরুরি ও অত্যাবশ্যকীয় পণ্য ও সেবার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অফিসসমূহ, তাদের কর্মচারী ও যানবাহন এ নিষেধাজ্ঞার আওতাবহির্ভূত থাকবে।

৬. অতি জরুরি প্রয়োজন ছাড়া (ওষুধ ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি ক্রয়, চিকিৎসা সেবা, মৃতদেহ দাফন/সৎকার ইত্যাদি) কোনোভাবেই বাড়ির বাইরে বের হওয়া যাবে না। তবে টিকা কার্য প্রদর্শন সাপেক্ষে টিকা গ্রহণের জন্য যাতায়াত করা যাবে।

৭. খাবারের দোকান ও হোটেল-রেস্তোরাঁয় দুপুর ১২টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা এবং রাত ১২টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত কেবর খাদ্য বিক্রয়/সরবরাহ করা যাবে। শপিংমলসহ অন্যান্য দোকান বন্ধ থাকবে।

৮. কাঁচাবাজার এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত উন্মুক্ত স্থানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্রয়-বিক্রয় করা যাবে। বাজার কর্তৃপক্ষ স্থানীয় প্রশাসন বিষয়টি নিশ্চিত করবে।

৯. বোরো ধান কাটার জরুরি প্রয়োজনে কৃষি শ্রমিক পরিবহনে সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসন সমন্বয় করবে।

১০. সারা দেশে জেলা ও মাঠ প্রশাসন উল্লিখিত নির্দেশনা বাস্তবায়নে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করবে এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নিয়মিত টহল জোরদার করবে।

১১. স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক তার পক্ষে জেলা প্রশাসন ও পুলিশ বিভাগকে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের প্রয়োজনীয় ক্ষমতা প্রদান করবেন।

১২. স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে জুমা ও তারাবির নামাজে জমায়েত বিষয়ে ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয় নির্দেশনা জারি করবে।

১৩. উপরোক্ত নির্দেশনা বাস্তবায়নে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়/বিভাগ প্রয়োজনে সম্পূরক নির্দেশনা জারি করতে পারবে।

সর্বশেষ নিউজ