২৩, সেপ্টেম্বর, ২০২১, বৃহস্পতিবার

সিরাজদিখানে লকডাউনে উপজেলা প্রশাসন ব্যাপক তৎপর

সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি:করোনার মোকাবেলায় সরকারের নির্দেশ বাস্তবায়নে মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখানে লকডাউনের প্রথম দিনে উপজেলা প্রশাসন উপজেলার বিভিন্ন স্থানে ব্যাপক তৎপরতা চালিয়ে ১০টি অটোরিকশা আটক করে। মাস্ক পরিধান না করায় ৩ জনকে ২ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এ ব্যাপারে কাজ করছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এবং উপজেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্যকর্মী।

মঙ্গলবার ২২ জুন ভোর থেকে উপজেলার কুচিয়ামোড়া ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে , নিমতলা বাসস্ট্যান্ডে চেক পোস্ট বসিয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও উপজেলা প্রশাসন সিরাজদিখান বাজার,তালতলা বাজার,ইছাপুর চৌরাস্তা সহ বিভিন্ন স্থানে লকডাউন বাস্তবায়নে অভিযান চালিয়ে লকডাউন অমান্য করার দায়ে সিএনজি সহ ১০ টি অটোরিকশা আটক করে এবং মাস্ক পরিধান না করায় দণ্ডবিধি ১৮৬০ এর ২৩৯ ধারায় ও ভোক্তা আধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯এর ২৩ ধারায় ৩ জনকে ২ হাজার টাকা জরিমানা উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ ফয়েজুল ইসলাম।এ-সময় তিনি বলেন নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিষপত্রের দোকানপাট ছাড়া উপজেলার সব ধরণের রেস্তোরাঁ, চায়ের দোকান বা এমন কোন স্থান যেখানে মানুষের সমাগম হতে পারে সেগুলো বন্ধ রাখা হয়েছে বলে জানান।এ ছাড়া সিরাজদিখাের ভেতরে গণপরিবহনের চলাচলও বন্ধ রাখা হয়েছে। করোনাভাইরাস প্রতিরোধে উপজেলা জুড়ে ব্যাপক সচেতনতামূলক প্রচার প্রচারণা চালানো হচ্ছে।স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে যে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে সেটা মাইকিং করে, লিফলেট বিতরণ করে, পোস্টার টানিয়ে এবং মসজিদের ইমামের মাধ্যমে প্রচার করা হচ্ছে।

উপজেলার বিভিন্ন পয়েন্টে চেক পোস্ট বসিয়ে করোনার পাদুর্ভাব সংক্রমণ রোধে কার্যক্রম পরিচানা করেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার রাশেদুল ইসলাম এর নেতৃত্বে অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ বোরহান, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ কামরুজ্জামান।

স্থানীয় সাংবাদিক এবং এলাকাবাসীও জানিয়েছেন যে সকাল থেকে গোটা সিরাজদিখানে মানুষের চলাচল ছিল অনেক সীমিত।প্রয়োজনীয় বাজার করা ছাড়া কেউ সেভাবে বের হতে দেখা যায়নি।

সর্বশেষ নিউজ