৭, ডিসেম্বর, ২০২১, মঙ্গলবার

স্ত্রীর যৌতুক মামলায় কারাগারে পিবিআইয়ের এসআই

গাজীপুর প্রতিনিধি:

গাজীপুরে স্ত্রীর যৌতুক মামলায় জামিন নিতে এসে পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) শফিকুল ইসলাম সরকারকে (৪৪) কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। রবিবার (৩১ অক্টোবর) গাজীপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফারজানা ফারুখ এই আদেশ দেন।

শফিকুল ইসলাম নরসিংদীর মনোহরদী উপজেলার লেবুতলাচর হাজী খাঁ গ্রামের সিরাজুল ইসলাম সরকারের ছেলে। মৌলভীবাজার জেলা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনে (পিবিআই) কর্মরত তিনি।

বাদীপক্ষের আইনজীবী তোফাজ্জল হোসাইন জানান, মামলার বাদী শফিকুলের স্ত্রী গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলার টোক ইউনিয়নের পাচুয়া গ্রামের নুরুন নাহার সুলতানা (৩৯)। শফিকুল ২০০১ সালে তাদের বিয়ে হয়। এক মেয়ে ও এক ছেলে রয়েছে। মেয়ে এইচএসসি পরীক্ষার্থী এবং ছেলে পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ে।

শফিকুল ইসলাম গত তিন বছর আগে বাড়ি নির্মাণের জন্য স্ত্রীর কাছে যৌতুক দাবি করে আসছিলেন। এ নিয়ে তাদের মধ্যে বিরোধ দেখা দিলে ২০২০ সালের ১৪ ডিসেম্বর স্বামীর বিরুদ্ধে গাজীপুর আদালতে একটি মামলা করেন সুলতানা। পরবর্তীতে সমঝোতার শর্তে ওই মামলা প্রত্যাহার করতে বাদীকে বাধ্য করেন শফিকুল।

সুলতানা জানান, মামলা প্রত্যাহার করে নেওয়ার পর আবারও যৌতুক দাবি করে তার ওপর চাপ সৃষ্টি করতে থাকেন। এ ঘটনায় পুনরায় চলতি বছরের ১৮ জুলাই গাজীপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এজাহার করেন সুলতানা। আদালত আমলে নিয়ে সমন জারি করেন।

অভিযুক্ত ধার্য তারিখে আদালতে উপস্থিত না হওয়ায় শফিকুলের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। রবিবার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফারজানা ফারুখের আদালতে উপস্থিত হয়ে জামিন আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে সফিকুলকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

বাদী জানান, শফিকুল ইসলাম গত জানুয়ারি গোপনে আরেকটি বিয়ে করেছেন। ওই স্ত্রীকে নিয়ে তিনি কর্মস্থল এলাকায় বসবাস করেন। আর যৌতুকের জন্য সুলতানাকে বারবার চাপ দিচ্ছেন। তাই বাধ্য হয়ে আদালতে মামলা করেছেন।

 

সর্বশেষ নিউজ