১৬, জানুয়ারী, ২০২১, শনিবার

বাইডেনকে সেনাবাহিনীর কমান্ডার ইন চিফ ঘোষণা

মার্কিন বাহিনীর ৪৬তম কমান্ডার ইন চিফ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের জয়েন্ট চিফ অব স্টাফের এক বার্তায় তার নাম ঘোষণা করা হয়। এতে বলা হয়েছে, আগামী ২০ জানুয়ারি থেকে সংবিধান অনুযায়ী শপথ গ্রহণের মাধ্যমে তার ওপর এ দায়িত্ব ন্যস্ত হবে।

বার্তায় মার্কিন পার্লামেন্ট ভবন ইউএস ক্যাপিটলে উগ্র ট্রাম্প সমর্থকদের তাণ্ডবকে পার্লামেন্ট ও দেশের সংবিধানের ওপর প্রত্যক্ষ আঘাত হিসেবে উল্লেখ করা হয়। জয়েন্ট চিফস চেয়ারম্যান জেনারেল মার্ক মিলি এবং অন্যান্য জয়েন্ট চিফরা এই বার্তায় স্বাক্ষর করেন। তারা বলেন, ক্যাপিটল ভবনে সেদিন যা ঘটেছে তা আইনের শাসনের সঙ্গে সংগতিপূর্ণ নয়।

সামরিক বাহিনীর এই বার্তায় বলা হয়, সশস্ত্র বাহিনীর সদস্য হিসেবে আমাদের জাতির মূল্যবোধ এবং আদর্শকে ধারণ করতে হবে। আমরা আমাদের সংবিধানকে সমর্থন ও এর সুরক্ষা নিশ্চিত করি। সাংবিধানিক প্রক্রিয়ায় বিঘ্ন সৃষ্টি করার যে কোনও তৎপরতা যে আমাদের ঐতিহ্য, মূল্যবোধ ও অঙ্গীকারের পরিপন্থি তাই-ই শুধু নয়, এটি আইনেরও পরিপন্থি। বাক স্বাধীনতা ও সমাবেশের অধিকার কাউকে সহিংসতা, রাষ্ট্রদ্রোহ ও বিদ্রোহের অধিকার দেয় না।

গত বুধবার ইউএস ক্যাপিটলে ট্রাম্প সমর্থকদের তাণ্ডবের এক সপ্তাহের মাথায় মঙ্গলবার দেশটির সশস্ত্র বাহিনীর পক্ষ থেকে এমন বার্তা দেওয়া হলো।

বাক স্বাধীনতা এবং সমাবেশের অধিকার কাউকে সহিংসতা, রাষ্ট্রদ্রোহ এবং বিদ্রোহ করার অধিকার দেয় না, বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়।

গত ৬ জানুয়ারি মার্কিন কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশন চলাকালে সেখানে হামলা চালায় বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের উগ্র সমর্থকরা। এ ঘটনায় একজন পুলিশ সদস্যসহ মোট পাঁচ জন নিহত হন। এ ছাড়া আরো অসংখ্য মানুষ আহত হয়েছেন।

ওই বৈঠকেই জো বাইডেনকে দেশটির পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃতি দেয়া হয়। আগামী ২০ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করবেন এই ডেমোক্র্যাট।

সর্বশেষ নিউজ