৮, আগস্ট, ২০২২, সোমবার

আইপিএলের বাকি অংশ হলেও থাকবে না স্টোকসরা!

কত আয়োজন, জৈব সুরক্ষা বলয়ের নিরাপত্তা, তবু করোনার ধাক্কা সইতে পারেনি ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল)। ১৪তম আসর অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য স্থগিত হয়ে যায় গত ৪ মে, ২৯ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবার পর।

তবে এরইমধ্যে বাকি ম্যাচগুলো আয়োজনের জন্য ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে ইংল্যান্ডের ৩টি কাউন্টি ক্লাব ও শ্রীলঙ্কা। তবে ভারতের ভাবনায় আছে গতবারের ভেন্যু সংযুক্ত আরব আমিরাত। বিসিসিআই ভাবছে কোভিড পরিস্থিতির উন্নতি হলে আগামী সেপ্টেম্বরে বাকি অংশ আয়োজনের।

কিন্তু আয়োজন হলেও বিপত্তি ইংলিশ ক্রিকেটারদের নিয়ে। চলতি বছরে ইংল্যান্ডের ব্যস্ত সময় কাটবে। তাই যখনই হোক আইপিএলের জন্য ক্রিকেটারদের ছাড়পত্র দেওয়া হবে না বলে জানিয়ে দিইয়েছেন ইংল্যান্ডের ‘ডিরেক্টর অব ক্রিকেট’ অ্যাশলে জাইলস।

“এখনও জানি না স্থগিত হওয়া ম্যাচগুলো কবে, কোথায় অনুষ্ঠিত হবে। নতুন করে গুছিয়ে আইপিএল নেয়াটাও অনেক সময়ের ব্যপার। এই গ্রীষ্মে ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ডের সিরিজ শেষে জাতীয় দল ব্যস্ত হয়ে যাবে। তখন আর সম্ভব হবে না ক্রিকেটারদের ছাড়া। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ও অ্যাশেজ সিরিজ রয়েছে। খেলোয়াড়দের বিশ্রামের দরকার রয়েছে।”

এদিকে আইপিএল স্থগিত না হলে ঘরের মাঠে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বেশ কজন খেলোয়াড়কে পেত না দল। একই কারণ হতো নিউজিল্যান্ডেরও। এতে ব্যাপক সমালোচনায় পড়েছিল ইংল্যান্ড ক্রিকেট।

সর্বশেষ নিউজ