১৪, আগস্ট, ২০২২, রোববার

লেনদেনের সময় বাড়ল ব্যাংক-বিমা, শেয়ারবাজার ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে

আগামীকাল সোমবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত ব্যাংকে লেনদেন হবে। লেনদেন পরবর্তী আনুষঙ্গিক কার্যক্রম শেষ করার জন্য ব্যাংক খোলা থাকবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। গ্রাহকদের জরুরি আর্থিক সেবা দিতে স্বাস্থ্যবিধি পরিপালন করে দিনে সাড়ে ৪ ঘণ্টা খোলার নির্দেশনা দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এছাড়া নিরবচ্ছিন্ন ব্যাংকিং সেবা অব্যাহত রাখতে আন্তঃব্যাংক চেক নিষ্পত্তির নতুন সময়সূচি ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। ৫ লাখ টাকার বেশি অংকের চেক ক্লিয়ারিংয়ের জন্য দুপুর ১২টার মধ্যে পাঠাতে হবে। এসব চেক দুপুর দেড়টার মধ্যে নিষ্পত্তি হবে। আর যেকোনো রেগুলার চেক দুপুর সাড়ে ১২টার মধ্যে ক্লিয়ারিং হাউজে পাঠাতে হবে। এসব চেক বিকাল ৩টার মধ্যে নিষ্পত্তি হবে। এদিকে সকাল ১০টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত বিমা কোম্পানির প্রধান কার্যালয়সহ গুরুত্বপূর্ণ শাখাগুলো খোলা থাকবে।

আজ রবিবার বাংলাদেশ ব্যাংকের ডিপার্টমেন্ট অব অফ-সাইট সুপারভিশন ‘করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধকল্পে সরকার কর্তৃক আরোপিত বিধি-নিষেধের মধ্যে ব্যাংকিং কার্যক্রম প্রসঙ্গে’ নতুন এ নির্দেশনায় বলা হয়, ব্যাংক কার্যক্রম অব্যাহত রাখার বিষয়ে ২০২১ সালের ১৩ এপ্রিল নির্দেশনা জারি করা হয়। পরবর্তী সময়ে ২০ ও ২৮ এপ্রিল, ৫ মে এবং ১৬ মে সীমিত পর্যায়ে ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালনের সময়সীমা ২৩ মে পর্যন্ত বর্ধিত করা হয়। কিন্তু ২৩ মে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে চলমান বিধিনিষেধ আগামী ৩০ মে পর্যন্ত বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে বিধিনিষেধের সময় ব্যাংক কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে ২৪ থেকে ৩০ মে পর্যন্ত সীমিত পর্যায়ে ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালিত হবে। এ সময় দৈনিক ব্যাংকিং লেনদেন হবে সকাল ১০টা থেকে আড়াইটা পর্যন্ত। লেনদেন পরবর্তী আনুষঙ্গিক কার্যক্রম সম্পাদনের জন্য সংশ্লিষ্ট ব্যাংক শাখা এবং প্রধান কার্যালয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগ বিকেল ৪টা পর্যন্ত খোলা রাখা যাবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের ১৩ এপ্রিল জারি করা ডিওএস সার্কুলার লেটার নং-১৫ এ প্রদত্ত অন্যান্য নির্দেশ অপরিবর্তিত থাকবে। অর্থাৎ প্রতিটি ব্যাংকের উপজেলা শহরের একটি শাখা খোলা থাকবে বৃহস্পতিবার, রোববার ও মঙ্গলবার। এবং সিটি করপোরেশনের এলাকার দুই কিলোমিটারের মধ্যে একটি শাখা প্রতি কর্মদিবস খোলা রাখতে হবে। ব্যাংক কোম্পানি আইন, ১৯৯১ এর ৪৫ ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে এ নির্দেশনা জারি করা হলো- সার্কুলারে বলা হয়েছে।

নিরবচ্ছিন্ন ব্যাংকিং সেবা অব্যাহত রাখতে আন্তঃব্যাংক চেক নিষ্পত্তির নতুন সময়সূচি ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। রবিবার বাংলাদেশ ব্যাংকের পেমেন্ট সিস্টেমস ডিপার্টমেন্ট এ বিষয়ে একটি নির্দেশনা জারি করেছে। এতে বলা হয়েছে, ৫ লাখ টাকার বেশি অংকের চেক ক্লিয়ারিংয়ের জন্য দুপুর ১২টার মধ্যে পাঠাতে হবে। এসব চেক দুপুর দেড়টার মধ্যে নিষ্পত্তি হবে। আর যেকোনো রেগুলার চেক দুপুর সাড়ে ১২টার মধ্যে ক্লিয়ারিং হাউজে পাঠাতে হবে। এসব চেক বিকাল ৩টার মধ্যে নিষ্পত্তি হবে। পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত সরকার ঘোষিত বিধিনিষেধের দিনগুলোতে এই সময়ে চেক ক্লিয়ারিং করবে বিএসিএইচ। আরটিজিএস-এর লেনদেন হবে সকাল ১০টা থেকে বেলা আড়াই পর্যন্ত এবং বাংলাদেশ ইলেকট্রনিক ফান্ডস্ ট্রান্সফার নেটওয়ার্ক (বিইএফটিএন) সেবা পূর্বের নিয়মে চলবে বলে নির্দেশনায় বলা হয়েছে।

গ্রাহকদের জরুরি আর্থিক সেবা দিতে স্বাস্থ্যবিধি পরিপালন করে কাল সোমবার থেকে দিনে সাড়ে ৪ ঘণ্টা খোলার নির্দেশনা দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এতদিন বিধিনিষেধে চার ঘণ্টা খোলা ছিল। রবিবার বাংলাদেশ ব্যাংকের আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও বাজার বিভাগ এ সংক্রান্ত সার্কুলার জারি করেছে। এছাড়া শেয়ারবাজারে লেনদেনের সময় আজ সোমবার থেকে ৩০ মিনিট বাড়ছে। ব্যাংকের লেনদেনের সময় বাড়ানোর পর শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থাও শেয়ারবাজারে লেনদেন বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) কমিশনার শেখ শামসুদ্দিন আহমেদ রবিবার এ তথ্য নিশ্চিত করেন। জানা গেছে, আজ সোমবার থেকে শেয়ারবাজারে লেনদেন হবে সকাল ১০টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত। বিএসইসি সূত্রে জানা গেছে, কাল থেকে শেয়ারবাজারে লেনদেন হবে সকাল ১০টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত। রবিবার লেনদেনের সময়সীমা ছিল সকাল ১০টা থেকে বেলা দেড়টা পর্যন্ত। করোনার আগে স্বাভাবিক সময়ে শেয়ারবাজারে লেনদেন চলত সকাল ১০টা থেকে বেলা আড়াইটা পর্যন্ত। করোনার কারণে এ লেনদেনের সময় কমে গিয়েছিল। করোনার আগে স্বাভাবিক সময়ে শেয়ারবাজারে লেনদেন চলত সকাল ১০টা থেকে বেলা আড়াইটা পর্যন্ত। করোনার কারণে এ লেনদেনের সময় কমে গিয়েছিল। এখন ব্যাংক লেনদেনের সময় বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে শেয়ারবাজারেও লেনদেনের সময় বাড়ছে। আর ৩০ মিনিট লেনদেন সময় বাড়লেই শেয়ারবাজার তার স্বাভাবিক সময়ের লেনদেনে ফিরে যাবে। বিএসইসির কমিশনার শেখ শামসুদ্দিন জানিয়েছেন, সোমবার থেকে সকাল ১০টা থেকে বেলা ২টায় চার ঘণ্টার লেনদেনের আগে-পরে ১৫ মিনিট করে প্রাক্-ক্লোজিং সেশন চলবে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকার ঘোষিত বিধিনিষেধ ৩০ মে পর্যন্ত বাড়ানোর সময়ে বিমা কোম্পানির অফিসও খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ)। এর ফলে সকাল ১০টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত বিমা কোম্পানির প্রধান কার্যালয়সহ গুরুত্বপূর্ণ শাখাগুলো খোলা থাকবে। এ বিষয়ে আইডিআরএর চেয়ারম্যান ড. এম মোশাররফ হোসেন বলেন, দেশের অর্থনীতির কথা চিন্তা করে বিমা কোম্পানির অফিস খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত ব্যাংকগুলো সকাল ১০টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত লেনদেন হবে। তবে ব্যাংক খোলা থাকবে বিকেল চারটা পর্যন্ত। অন্যদিকে পুঁজিবাজারের লেনদেন সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত চলবে

সর্বশেষ নিউজ