৬, ডিসেম্বর, ২০২২, মঙ্গলবার

বঙ্গবন্ধু হত্যার ক্ষেত্র তৈরি করেছিল জাসদ

স্টাফ রিপোটার:
জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদের বিরুদ্ধে বঙ্গবন্ধু হত্যার ক্ষেত্র তৈরির অভিযোগ তুললেন জাতীয় পার্টির কো-চেয়ার কাজী ফিরোজ রশীদ। তিনি বলেন, হেফাজতে ইসলামকে জঙ্গি বানাইছে ইনু সাহেব। আরে জঙ্গি কারে বলে? আন্দোলন তো মানুষই করে। আন্দোলন করবে, আন্দোলন অনেক সময় সহিংসতায় চলে যায়। কিন্তু তারা জঙ্গি নয়, জঙ্গি হচ্ছে সশস্ত্র বিপ্লব যারা করে সরকারকে হঠানোর জন্য, যেটা ইনু সাহেবরা করেছিলেন।

বৃহস্পতিবার (২৭ জানুয়ারি) সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনা ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, সেদিন (পঁচাত্তর সালে) জাসদ যদি ক্ষেত্র প্রস্তুত না করত বঙ্গবন্ধুকে কেউ হত্যা করতে পারতো? বঙ্গবন্ধুকে কেউ এভাবে নির্মমভাবে হত্যা করার দুঃসাহস পেতো? সমস্ত ক্ষেত্র তারা প্রস্তুত করেছিল। আজকে বলে আমরা কিছু জানি না।

যুবলীগের সাবেক এই নেতা বলেন, জাসদ ১৯৭৩ সাল থেকে ১৯৭৫ সাল পর্যন্ত এই দেশে হাজার হাজার যুবলীগ, আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ কর্মীদের হত্যা করেছে। অনেক পুলিশ ফাঁড়ি তারা দখল করেছে, পুলিশ ফাঁড়ি লুট করেছে, থানা লুট করেছে, ট্রেজারি লুট করেছে। ঈদের জামায়াতে আমাদের আওয়ামী লীগের এমপিদের তারা হত্যা করেছে দিনের বেলায়। জামায়াতে দাঁড়িয়ে ঈদের জামাতে বসা অবস্থায় হত্যা

তিনি বলেন, সেদিন আমি ঢাকা যুবলীগের প্রধান ছিলাম। সেদিন হারুন মোল্লা সভাপতি ছিল। মিরপুর থানার বড় একটা মিছিল নিয়ে এলো খালেক সাহেব। তাদের একটা পত্রিকা ছিল গণকন্ঠ। সেই পত্রিকা পড়ে দেখেন সেদিন কি না বানাইছে আমাদের। চোর-ডাকাত সব কিছু বানাইছে তারা। স্বাধীনতার শত্রু ওই পত্রিকা তারা পড়ত। সমস্ত মানুষকে তারা ক্ষিপ্ত করে তুলেছিল। এই জাসদ আজকে গণতন্ত্রের কথা বলে বঙ্গবন্ধুর কথা বলে।

বিচারবহির্ভূত হত্যা নিয়ে রাশেদ খান মেননের বক্তব্যের জবাবে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা কাজী ফিরোজ রশীদ বলেন, যারা গণতন্ত্রের মর্ম বুঝে না, স্বাধীনতার মর্ম বুঝে না তাদের সঙ্গে আবার কিসের কথা। র‌্যাব যদি একদিন বলে যে রাতে আমরা বের হব না, ক্যাম্পে থাকবো, নামাজ-রোজা করবো তাহলে ওই দিন এই দেশ সন্ত্রাসীদের অভয়ারণ্যে পরিণত হবে।

সরকারকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, এতদিন তারা (বিএনপি-জামাত) লবিস্ট নিয়োগ করল আমরা কেন পাল্টা লবিস্ট নিয়োগ করতে পারলাম না?

সর্বশেষ নিউজ