৬, ডিসেম্বর, ২০২২, মঙ্গলবার

গোপালগঞ্জে জাতীয় অভিযোজন পরিকল্পনা প্রণয়নে বিভাগীয় পর্যায়ে পরামর্শ সভা

কাজী ওহিদ- গোপালগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ
গোপালগঞ্জে জাতীয় অভিযোজন পরিকল্পনা প্রণয়নে বিভাগীয় পর্যায়ে পরামর্শ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৩ মার্চ বৃহস্পতিবার সকালে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে “স্বচ্ছতা’য় জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচীর (ইউএনডিপি) সহযোগিতায় পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের জলবায়ু পরিবর্তন অনুবিভাগ এবং অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ (জাতিসংঘ অনুবিভাগ) যৌথভাবে এ পরামর্শ সভার আয়োজন করেন।
গোপালগঞ্জ জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা
সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে মুল্যবান বক্তব্য রাখেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ও জাতীয় অভিযোজন পরিকল্পনার সমন্বয়ক মো. মিজানুল হক চৌধুরী। তিনি বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন অভিযোজন প্রচেষ্টার চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করার জন্য গোপালগঞ্জ জেলা সহ উপকূলীয় জেলা
গুলোকে নিয়ে একটি মহাপরিকল্পনার প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। তিনি আরো বলেন, উপকূলীয় ১৯টি জেলাকে প্রধান্য দিয়ে জাতীয় অভিযোজন পরিকল্পনা প্রণয়নের কাজ করা হচ্ছে। এর মধ্যে গোপালগঞ্জ জেলা রয়েছে। এটি এখন শেষ পর্যায়ে। জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে উপ
কূলবাসীকে যেসব সমস্যা মোকাবেলা করতে হচ্ছে, তা সমাধানে কাজ করা হবে বলে তিন জানান ।
অনুষ্ঠানের সভাপতি গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা বলেন,”জলবায়ু পরিবর্তনে গোপালগঞ্জ জেলার সার্বিক পরিবেশের উন্নয়নে সকলকে দায়িত্বশীলতার সাথে কাজ করতে হবে। সকলের আন্তরিক সহযোগিতায় সরকার দেশের পরিবেশের উন্নয়নে সফল হবে। বৃক্ষরোপণ ও পরিবেশের মান উন্নয়নে গৃহীত প্রকল্পের কাজ সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে করতে হবে। আমাদের কাজের যথাযথ মান বজায় রাখতে হবে। যেকোন সমস্যা পারস্পরিক আলোচনা করে সমাধান পূর্বক উন্নয়ন কাজ চালিয়ে নিয়ে যেতে হবে। সভায় গোপালগঞ্জ পৌর মেয়র কাজী লিয়াকত আলী বলেন, সম্প্রতি গোপালগঞ্জেও জলবায়ুর প্রভাব পড়েছে। ৬ মাস নদীতে লবণাক্ততা থাকে। অসময়ে বৃষ্টিতে জলাবদ্ধতা হয়। এতে কৃষিখাতে প্রভাব পড়েছে। আমরা সবাই কোনো না কোন ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছি। এ সময় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব অমল কৃষ্ণ মন্ডল।অনুষ্ঠানে অনলাইনে সংযুক্ত হয়ে বক্তব্য রাখেন ন্যাপ -এর টিম লিডার অধ্যাপক আইনুন নিশাত। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, উপসচিব সৈয়েদা মাছুমা খানম। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ লুৎফার রহমান বাচ্চু প। এ সময় সিভিল সার্জন ডা. নিয়াজ মোহাম্মদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. ইলিয়াছুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুর রহমান, কাশিয়ানী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রথীন্দ্র নাথ রায়, গোপালগঞ্জ জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী দীপক চন্দ্র তালুকদার, জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ ফইজুর রহমান, প্রেস ক্লাবের মহাসচিব সৈয়দ মিরাজুল ইসলাম, দৈনিক বর্তমান গোপালগঞ্জ এর সম্পাদক শেখ মোস্তফা জামান, সিনিয়র সাংবাদিক মোজাম্মেল হোসেন মুন্না, গণমাধ্যমকর্মী কে, এম, সাইফুর রহমান সহ জেলার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা ও সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া সভায় অনলাইনে দেশের বিভিন্ন জেলার জেলা প্রশাসক, প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তাগণ, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক, মুক্তিযোদ্ধাসহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ অংশ নেন।

সর্বশেষ নিউজ