৬, ডিসেম্বর, ২০২২, মঙ্গলবার

ফেসবুক বড় সুখবর দিয়ে নিয়ে এলো নতুন চমক

হোম ফিডে পরিবর্তন এনেছে ফেসবুক। গ্রাহকদের সুবিধার্থে হোমফিড আরও সহজ করে তুলতে এবার আপডেটেড ফিচার এনেছে বিশ্বের অন্যতম এই সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট।
ফেসবুকের হোম ফিড
বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) থেকে প্ল্যাটফর্মটি তার ‘হোম’ বিভাগ দুটি ট্যাবে বিভক্ত করেছে। এ পদক্ষেপটি ব্যবহারকারীদের আরও বিনোদনমূলক ও বিভিন্ন কন্টেন্ট সাজেস্ট করবে। মার্ক জুকারবার্গ এটিকে ‘ডিসকভারি ইঞ্জিন’ হিসেবে অভিহিত করেছেন। ফেসবুকে ব্যবহারকারীদের সময় ও মনোযোগ বাড়াতে এটি কাজ করবে।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের খবরে বলা হয়েছে, মূলত টিকটকের মতো প্রতিদ্বন্দ্বীদের সঙ্গে প্রতিযোগিতা বাড়াতে এ পদক্ষেপ নিয়েছে ফেসবুক।

ব্যবহারকারীরা এখন ফেসবুকে খুলে একটি হোম ট্যাব দেখতে পাবে, তাতে বিভিন্ন ধরনের সুপারিশ ও প্রস্তাবিত (রিকমেন্ডেড) কন্টেন্ট ডিজাইন করা হয়েছে। হোম ট্যাবে ফেসবুক স্টোরি ও ইনস্টাগ্রাম রিলও থাকবে। কোম্পানি এখন ব্যবহারকারীদের দুই প্ল্যাটফর্মে পোস্ট করতে উৎসাহিত করছে।

হোম ট্যাবের পাশে একটি নতুন ‘ফিডস’ ট্যাব থাকবে, তাতে কোনো প্রস্তাবিত কন্টেন্ট থাকবে না। বরং বন্ধুদের সাম্প্রতিক পোস্ট, ফলোয়িং গ্রুপের পোস্ট ও পেজের আডডেট দেখতে পাবে। ফিডস ট্যাবের সাহায্যে ব্যবহারকারীরা ফ্রেন্ড, গ্রুপ ও পেজ ফিল্টার করতে ‘ফেভারিট’ অর্থাৎ প্রিয় ফিড তৈরি করতে পারবে।

কোম্পানির সিস্টেম অনুযায়ী, উভয় ট্যাবে বিজ্ঞাপন অন্তর্ভুক্ত করা হবে। অন্যান্য ট্যাব যেমন ওয়াচ ও গ্রুপস- একই থাকবে।

কোম্পানির এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আমরা বুঝতে পারি যে আপনারা বিষয়বস্তু বাছাই ও দেখার ক্ষেত্রে অপশন খুঁজতে পারেন। যেমন ধরুন, আপনি আপনার গ্রুপের সাম্প্রতিক পোস্ট অথবা নতুন ও বিনোদনমূলক কন্টেন্ট দেখতে চাইতে পারেন।

গত সপ্তাহে ফেসবুকের এ ফিড ট্যাবের পরিবর্তনের ঘোষণা দেয়া হয়েছিল। নতুন এ পরিবর্তন বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) থেকে কিছু ব্যবহারকারীর জন্য চালু করা হয়েছে। আশা করা হচ্ছে, এ সপ্তাহের মধ্যে এই পরিবর্তন সব ব্যবহারকারীর চোখে পড়বে।

ফেসবুক বিশ্বে জনপ্রিয়তার দিক থেকে তৃতীয়। গুগল ও ইউটিউবের পরই এর অবস্থান। ফেসবুকের যাবতীয় আকাউন্টের মধ্যে শতকরা ৩৮ ভাগই এশিয়া মহাদেশের। ইন্দোনেশিয়া, ভারত ও ফিলিপিন্সে সব থেকে বেশি ব্যবসা করেছে ফেসবুক।

সার্চ ইঞ্জিন জার্নালের তথ্য অনুযায়ী, ব্যবহারকারীরা রোজ গড়ে ৫৮ মিনিট সময় ফেসবুকে ব্যয় করেন। তবে প্রতিটা কন্টেন্টের পেছনে একজন ইউজার কিন্তু বেশি সময় ব্যয় করেন তা কিন্তু নয়। বরং ফিডে আসা প্রতিটি কন্টেন্টে একজন ইউজার মাত্র ১.৭ সেকেন্ড সময় ব্যয় করেন।

সর্বশেষ নিউজ