৬, ডিসেম্বর, ২০২২, মঙ্গলবার

মুকসুদপুর উপজেলায় প্রায় ৩ শতাধিক পূজা মন্ডবে আনন্দঘন পরিবেশে শারদীয় দূর্গা পূজা শুরু হয়েছে

কাজী ওহিদ- মগোপালগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি-

গোপালগঞ্জ জেলার মুকসুদপুর উপজেলায় পূর্ব কাল হতে মুসলমান, হিন্দু ও খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের লোকজন বসাবস করে আসছে। জনসংখ্যার দিক থেকে মুসলমান সম্প্রদায়ের পরই হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকের বসাবস। সনাতন হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের এই অঞ্চলে বসাবস বেশী । সনাতন ধর্মের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব হচ্ছে দূর্গাপূজা। মুকসুদপুর উপজেলার মুকসুদপুর পৌরসভা সহ ১৬ টি ইউনিয়নে এ বছর মোট ২ শত ৯৮ টি পূজা মন্ডবে শারদীয় দূর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। করোনা সংত্রুান্ত কারনে প্রায় ৩ বছর হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন আনন্দ উল্লাসে ধর্মীয় উৎস উদযাপন করতে পারেনি। এবছর প্রশাসনের কোন বাধা বিপত্ত না থাকায় হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন ব্যাপক আনন্দ উৎস উদ্দীপনার আয়োজনের মাধ্যমে তাদের ধর্মীয় অনুষ্ঠান পূজা উদযাপন করছে। এবছর উপজেলার উজানী ইউনিয়নে ৪৪ টি, জলিরপাড় ইউনিয়নে ৪৩ টি ও বহুগ্রাম ইউনিয়নে ৩৬ টি সহ ১টি পৌরসভা ও ১৬ টি ইউনিয়নে হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ দূর্গাপূজা উদযাপন করছেন। মুকসুদপুর উপজেলার মধ্যে সবচেয়ে বড় পূজা উদযাপিত হচ্ছে মুকসুদপুর পৌরসভার সদর বাজারের সার্বজননী মন্দিরে। উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ফাইজুল ইসলাম জানান, প্রতিটি পূজা মন্ডবে জিআর এর ৫০০ কেজি করে চাউল সরকারী তরফ হতে অনুদান হিসেবে প্রদান করা হয়েছে। সারা দেশে ন্যায় মুকসুদপুর উপজেলায় ১ অক্টোম্বর সষ্ঠির মধ্য দিয়ে পূজার কার্যত্রুম শুরু হয়েছে, ২ অক্টোম্বর সপ্তমী, ৩ অক্টোম্বর অষ্টমী, ৪ অক্টোম্বর নবমী এবং ৫ অক্টোম্বর বিজয় দশমীর মধ্যম দিয়ে পূজা সম্পূন্ন হবে বলে জানা গেছে। মুকসুদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আবু বকর মিয়া ভোরের কাগজ প্রতিনিধিকে জানান এবছর দূর্গাপূজা শান্তিপূর্ণ ভাবে সম্পূন্ন করার জন্য পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ হতে সকল প্রকার কঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। প্রতিটি মন্ডবে আনসার, ভিডিপি এবং স্থানীয় গ্রাম পুলিশ সার্বিকক্ষন দায়িত্ব নিয়োগ রয়েছে। এছাড়া মুকসুূপুর থানার একটি পুলিশ টিক সাদা পোষাকে সার্বক্ষণিক ভাবে মাঠে নিয়োজিত থাকবে বলে তিনি জানান। নিরাপত্তার জন্য অধিকাংশ পূজা মন্ডবে সিসি ক্যামেরা লাগানো হয়েছে। মুকসুদপুর উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সাধারন সম্পাদক উত্তম কুমার দাস জানান, মুকসুদপুর উপজেলায় ২৯৮টি পূজা মন্ডবে শারদীয় দূর্গা পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে এবং প্রতিটি মন্ডবে সরকারী ভাবে জিআর এর ৫০০ কেজি করে চাউল অনুদান হিসেবে বিতরণ করা হয়েছে। মুকসুদপুর সদর বাজার সার্বজনীন মন্দির কমিটির সভাপতি অখিল সাহা জানান এবছর সারা দেশের ন্যায় মুকসুদপুর উপজেলায় উৎসব মুখোর পরিবেশে পূজা উদযাপিত হচ্ছে। বর্তমান সরকার সনাতন ধর্মের শারদীয় দূর্গাপূজা শান্তিপূর্ণ সম্পূন্ন করার লক্ষে পূজা মন্ডব গুলোতে পর্যাপ্ত নিরাপত্তার ব্যবস্থা নিয়েছেন। এজন্য তিনি সরকার এবং প্রশাসনের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

সর্বশেষ নিউজ