৫, মার্চ, ২০২৪, মঙ্গলবার
     

আলালকে টার্গেট করেছে সরকার: মির্জা ফখরুল

বিএনপি নেতা মোয়াজ্জেম হোসেন আলালের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবাদ জানিয়ে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আলালকে সরকার টার্গেট করে ছাত্রলীগ নেতাকে দিয়ে মামলা করিয়েছে।

বুধবার দলের সহদপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এ প্রতিবাদ জানান বিএনপি মহাসচিব।

বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব বলেন, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বিএনপির একজন গুরুত্বপূর্ণ নেতা। অন্যায়ের বিরুদ্ধে তিনি সবসময় সোচ্চার থাকেন। সে জন্যই সরকার তাকে টার্গেট করে ছাত্রলীগ নেতাকে দিয়ে শাহবাগ থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করিয়েছে। অথচ বর্তমানে বিদেশে একটি হাসপাতালে মুমূর্ষু অবস্থায় চিকিৎসাধীন আলাল।

তিনি বলেন, সরকারের বিরুদ্ধে তীব্র ন্যায়সঙ্গত সমালোচনা করার জন্যই তাকে হয়রানি করতে এ মামলা করা হয়েছে। সরকার আসলে কর্তৃত্ববাদী শাসন চিরস্থায়ী করার জন্যই বিভিন্ন কালাকানুন প্রণয়ন করে এসেছে। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন তার মধ্যে অন্যতম। এখন এই কালাকানুনে বিএনপি নেতাদের জড়িয়ে দেশে একটি নির্বাক পরিস্থিতি সৃষ্টির আয়োজন চলছে।

সরকার পতনের ঘণ্টা বাজতে শুরু করেছে মন্তব্য করে বিবৃতিতে ফখরুল বলেন, চারদিকে এখন বর্তমান জনবিচ্ছিন্ন সরকারের পতনের ঘণ্টা বাজতে শুরু করেছে বলেই সরকার দিগ্বিদিক জ্ঞানশূন্য হয়ে বিএনপিসহ বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের ওপর নানান কায়দায় জুলুম-নির্যাতন চালিয়ে যাচ্ছে। আলালের বিরুদ্ধে মামলা সেটিরই বহিঃপ্রকাশ। আমি আলালের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলার ঘটনায় নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং অনবিলম্বে মামলা প্রত্যাহারের দাবি করছি।

অপর এক বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব বলেন, সোমবার ফেনীতে জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের সাংগঠনিক কাজে ফেনী সফররত মহিলা দল কেন্দ্রীয় সভাপতি আফরোজা আব্বাসসহ তার সফরসঙ্গীদের পুলিশ ফেনীর কোনো হোটেলে থাকতে না দেওয়ার ঘটনা প্রমাণ করে সরকারের পায়ের নিচের শেষ মাটিটুকুও আর অবশিষ্ট নেই। মানুষের নাগরিক অধিকার এখন ধুলোয় মিশে গেছে। বিএনপি নেতা-নেত্রীদের রাতযাপনের অধিকার থেকেও বঞ্চিত করা হচ্ছে। এটি সরকারের গণবিরোধী নীতিরই বহিঃপ্রকাশ। আমি ফেনী পুলিশের এহেন ন্যক্কারজনক ঘটনায় তীব্র ধিক্কার ও নিন্দা জানাই।

               

সর্বশেষ নিউজ