১৫, জুলাই, ২০২৪, সোমবার
     

যে দেশে মানুষের চেয়ে অস্ত্রের সংখ্যা বেশি

যুক্তরাষ্ট্র পৃথিবীর তিনটি দেশের মধ্যে একটি দেশ যেখানে বেসামরিক মানুষ অস্ত্র রাখতে পারেন। এটি তাদের গণতান্ত্রিক অধিকার।

অন্য দুটি দেশ হলো মেক্সিকো ও গুয়েতেমালা।

তবে এই তিনটি দেশের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রই একমাত্র দেশ যে দেশে বেসামরিক মানুষের সংখ্যার চেয়ে অস্ত্রের সংখ্যা বেশি। সু্ইজারল্যান্ড ভিত্তিক স্মল আর্মস সার্ভে নামে একটি প্রতিষ্ঠান জানিয়েছে এমন তথ্য।

গণমাধ্যম সিএনএনের তথ্য অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রই বিশ্বের একমাত্র দেশ যেখানে প্রতি বছর অন্তত একটি ‘অস্ত্র সন্ত্রাসের’ ঘটনা ঘটে।

সুইজারল্যান্ডের ওই সংগঠনটি জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রে প্রতি ১০০ জন মানুষের বিপরীতে আছে ১২১টি অস্ত্র।

টেক্সাসের রব এলিমেন্টারি স্কুলে ১৯ জন শিশু ও দুইজন ব্যক্তি নিহত হওয়ার পরই এমন ভয়ানক ও বিষ্ময়কর তথ্য প্রকাশ করল প্রতিষ্ঠানটি।

দেশের জনসংখ্যার অনুপাতে অত্যাধিক অস্ত্র থাকার দিক দিয়ে দ্বিতীয়স্থানে আছে ফকল্যান্ড আইল্যান্ড। সেখানে প্রতি ১০০ জন বেসামরিক মানুষের মধ্যে ৬২ জনের হাতে অস্ত্র আছে।

তৃতীয় স্থানে আছে যুদ্ধ বিধ্বস্ত ইয়েমেন। সেখানে ১০০ জন মানুষের বিপরীতে অস্ত্র আছে ৫২টি।

অন্যদিকে বেসামরিক লোকদের কাছে অস্ত্র প্রায় নেই দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপানে।

সুইজারল্যান্ডের ওই প্রতিষ্ঠানটি আরও জানিয়েছে, বিশ্বে বেসামরিক অস্ত্র আছে ৮৫৭ মিলিয়ন। এর মধ্যে শুধুমাত্র যুক্তরাষ্ট্রের বেসামরিক লোকদের কাছে আছে ৩৯৩ মিলিয়ন। যা পুরো বিশ্বে থাকা বেসামরিক অস্ত্রের ৪৬ ভাগ।

প্রতিষ্ঠানটি আরও জানিয়েছে, ৪৪ ভাগ প্রাপ্ত বয়স্ক আমেরিকান তাদের ঘরে অস্ত্র রাখেন।

সূত্র: ডেইলি সাবাহ, সিএনএন

               

সর্বশেষ নিউজ