১৫, জুলাই, ২০২৪, সোমবার
     

সবচেয়ে বেশি দেশের শিক্ষার্থী নিয়ে গিনেস বুকে মদিনা বিশ্ববিদ্যালয়

সবচেয়ে বেশি দেশের শিক্ষার্থী নিয়ে গিনেস বুকে নাম লেখাল সৌদি আরবের ঐতিহাসিক মদিনা ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়। শ্রেণিকক্ষে বিভিন্ন দেশ ও জাতির শিক্ষার্থীর উপস্থিতির দিক থেকে এ রেকর্ড অর্জন করল বিশ্বের অন্যতম ইসলামী এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটি।

গত মঙ্গলবার (৭ জুন) সৌদি প্রেস এজেন্সি (এসপিএ) এ তথ্য নিশ্চিত করে। সংবাদ সংস্থাটি জানায়, মদিনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সবক’টি বিভাগে ১৭০টির বেশি দেশের ২০ হাজারের অধিক শিক্ষার্থী পড়াশোনা করেন। এর আগে ২০১৭ সালেও এই একই কারণে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে অন্তর্ভুক্ত হয় বিশ্ববিদ্যালয়টি।

এ উপলক্ষে গত বুধবার (৮ জুন) মদিনা ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেসিডেন্ট ড. মামদুহ বিন সাউদ বিন সানয়ান আলে সাউদকে নতুন করে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকডর্সের সম্মাননা সনদ তুলে দেয়া হয়।

সারা বিশ্বে মধ্যপন্থা, সহাবস্থান ও শান্তি-সম্প্রীতিবোধ প্রসারে মদিনা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বিশেষ ভূমিকা পালন করছেন বলে মনে করা হয়। প্রতিবছর সৌদি সরকারের শিক্ষাবৃত্তি নিয়ে এই বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে আসেন বিশ্বের নানা দেশের জ্ঞানপিপাসু শিক্ষার্থীরা। শিক্ষা, আবাসন ও যানবাহনের পুরো ব্যয় বহন করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

১৯৬২ সালের ৬ সেপ্টেম্বর মোতাবেক ১৩৮১ হিজরির ২৫ রবিউল আউয়াল সৌদি বাদশাহ সাউদ বিন আবদুল আজিজের রাজকীয় নির্দেশনায় মদিনা ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয়। সারা বিশ্বে ইসলামী শিক্ষা বিস্তারে অনন্য ভূমিকা পালন করছে এটি।

ইসলামী শরিয়াহ, দাওয়াহ, কুরআন, হাদিস ও আরবি বিভাগের পাশাপাশি ২০০৯ সালে ইঞ্জিনিয়ারিং, কম্পিউটার সায়েন্স ফ্যাকাল্টি খোলা হয়। এসব বিভাগেই এসব শিক্ষার্থী পড়াশোনা করেন। বিশ্বের ৫০টির বেশি ভাষাভাষী শিক্ষার্থীদের বিচিত্র সংস্কৃতির মিলনমেলা এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস।

সূত্র : সৌদি প্রেস এজেন্সি ও আল রিয়াদ ডটকম

               

সর্বশেষ নিউজ