১৫, জুলাই, ২০২৪, সোমবার
     

সাবাশ বাংলাদেশ, পৃথিবী অবাক হয়ে তাকিয়ে রয়

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, অনেক বাধা বিপত্তি পেড়িয়ে, ষড়যন্ত্র পিছনে ফেলে পদ্মা সেতু উদ্বোধন করতে পেরেছি। এটা শুধু ইট-সিমেন্টের তৈরি একটি অবকাঠামো নয়, এটা আমাদের অহংকার, আমাদের গর্ব। এই সেতু বাংলাদেশের জনগনের। এর সঙ্গে জড়িয়ে আছে আমাদের আবেগ, সাহসিকতা, জেদ, প্রত্যয়। শনিবার (২৫ জুন) পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে মাওয়া প্রান্তে আয়োজিত সুধি সমাবেশে দেওয়া বক্তব্য এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ষড়যন্ত্রের কারণে পদ্মা সেতু তৈরিতে দুই বছর বিলম্বিত হয়। তবুও আমরা হতাশায় ভুগিনি, সকল অন্ধকার ভেদ করে আলোর পথে যাত্রা করতে পেরেছি। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বলেছিলেন, কেউ দাবায় রাখতে পারবা না। কেউ পারেনি। আমরা বিজয়ী হয়েছি। সাবাশ বাংলাদেশ, পৃথিবী অবাক হয়ে তাকিয়ে রয়। আমরা মাথা নোয়াইনি। কখনো মাথা নোয়াবো না। বঙ্গবন্ধু ফাঁসির মঞ্চে দাড়িয়ে জীবনের জয়গান গেয়েছিলেন। বাংলার মানুষের মুক্তি চেয়েছিলেন, স্বাধীনতা চেয়েছিলেন। সেই স্বাধীনতা তিনি আমাদের এনে দিয়েছেন।

শনিবার সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রী সভামঞ্চে পৌঁছান। এর আগে সাড়ে ৯টায় তেজগাঁওয়ের পুরাতন বিমানবন্দর থেকে মুন্সীগঞ্জের মাওয়া প্রান্তের উদ্দেশ্যে রওনা দেন তিনি। সফরসূচি অনুয়ায়ী, শনিবার সকাল সাড়ে ৯টায় তেজগাঁওয়ের পুরাতন বিমানবন্দর থেকে মুন্সীগঞ্জের মাওয়া প্রান্তের উদ্দেশ্যে রওনা দেন তিনি। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পদস্থ কর্মকর্তারা তার সঙ্গে ছিলেন।

দিনের কার্যসূচি অনুযায়ী, প্রধানমন্ত্রী সকাল ১০টায় মাওয়া প্রান্তে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করবেন। সেখানে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সভাপতিত্বে সুধী সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করবেন। বেলা ১১টায় পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে স্মারক ডাকটিকিট, স্যুভেনির শিট, উদ্বোধন খাম ও সিলমোহর প্রকাশ করবেন। ১১টা ১০ মিনিটে টোলপ্লাজার উদ্দেশ্যে যাত্রা করবেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানে টোল দিয়ে ১১টা ১৫ মিনিটে মাওয়া প্রান্তে উদ্বোধনী ফলক ও ম্যুরাল-১ উন্মোচন করে মোনাজাতে অংশ নেবেন।

১১টা ২৩ মিনিটে সড়ক পথে জাজিরা প্রন্তের উদ্দেশ্যে যাত্রা করবেন। বহুল কাঙ্ক্ষিত পদ্মা সেতু পার হয়ে তিনি ১১টা ৪৫ মিনিটে পদ্মা সেতুর জাজিরা প্রান্তে উদ্বোধনী ফলক ও ম্যুরাল-২ উন্মোচন করে আবারও মোনাজাতে অংশ নেবেন। সেখান থেকে ১১টা ৫০ মিনিটে মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার কাঁঠালবাড়ির উদ্দেশ্যে সড়ক পথে যাত্রা করবেন। দুপুর ১২টায় কাঁঠালবাড়িতে আওয়ামী লীগের জনসভায় অংশ নেবেন।

দুপুর ২টা ৩৫ মিনিটে জনসভা শেষ করে শরীয়তপুরের জাজিরার সার্ভিস এরিয়া-২ এর উদ্দেশ্যে সড়কপথে যাত্রা করবেন। সেখানে কিছু সময় অবস্থান করবেন। পরে জাজিরা প্রান্ত থেকে হেলিকপ্টারযোগে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা করবেন।

               

সর্বশেষ নিউজ