১৫, জুলাই, ২০২৪, সোমবার
     

শরীয়তপুরে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে জখম,সন্ত্রাসীদের ভয়ে, আতংকে দিন কাটাচ্ছে মুক্তিযোদ্ধা পরিবার

মোঃ সজিব সিকদার: শরীয়তপুর জেলার জাজিরা উপজেলার মুলনা ইউনিয়নের বাজার এলাকার এক ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। সন্ত্রাসীরা তাকে কুপিয়ে খ্যান্ত হয়নি,আসামীরা জামিনে বেরিয়ে তাদের পরিবারের উপর চালাচ্ছেন হুমকি ধামকি এতে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারটি রয়েছেন চরম আতংকে।

গত শনিবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
আহত ব্যবসায়ীর নাম মো. আলঙ্গীর চৌকিদার (৪৮)। তিনি কাউয়াদি গ্রামের বাসিন্দা ও তিনি বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হামিদ চৌকিদার এর সন্তান।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মুলনা বাজার এলাকায় তার নিজের দোকান বন্ধ করে আলঙ্গীর চৌকিদার ও তার ফুপাতো ভাই সায়মন মাদবর বাসায় ফিরার পথে উৎপেতে থাকা মোল্লা মার্কেট এর সামনে গেলেই ৪০-থেকে ৫০ জন সন্ত্রাসী বর্তমান চেয়ারম্যান জলিল মাদবরের হুকুমে সন্ত্রাসী জাহাঙ্গীর মাদবর এর নেতৃত্বে দলবল নিয়ে প্রথমে একাধিক হাত বোমা বিস্ফোরণ করে ব্যবসায়ীদের আতংকিত করে এবং পরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আলঙ্গীর চৌকিদার কে মাথায় ও হাতে কুপিয়ে জখম করেন এবং মৃত্যু নিশ্চিত করতে তার পায়ে চাইনিজ কুড়াল দিয়ে কোপাতে থাকেন এতে আলঙ্গীর চৌকিদার মাটিতে লুটিয়ে পারলে সন্ত্রাসীরা তার বুকে উপরে উঠে এলোপাতাড়ি লাথি মারে এতে আলঙ্গীর চৌকিদার অচেতন হয়ে পরে থাকলে এস্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে জাজিরা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়েগেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় প্রেয়ন করেন। বর্তম্যানে আলঙ্গীর চৌকিদার ঢাকায় মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন।

আহত আলঙ্গীর চৌকিদার এর পিতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হামিদ চৌকিদার এই ঘটনায় বাদী হয়ে জাজিরা থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত জাজিরা থানা পুলিশ কাউকে আটক করতে পারেনি। উল্টো পরিবারটিকে সন্ত্রাসীরা হুমকি ধামকি দিয়ে যাচ্ছেন এতে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারটি আতংকে দিন কাটাচ্ছেন বলে অভিযোগ করছেন।

আহত আলঙ্গীর চৌকিদার বলেন আমার বংশের সবাই বর্তমান চেয়ারম্যান জলিল মাদবর এর নির্বাচন করছেন সুধু আমি সাবেক চেয়ারম্যান নুরুল আমিন হাওলাদার নির্বাচন করছি জার কারণে তিনি আমার উপর এমন নিষ্ঠুরতম হামলা চালায় এই চেয়ারম্যান জলিল মাদবর এর আগেও আমাকে হত্যার চেষ্টা করছিলো এমনকি তার লালিতো সন্ত্রাসী দিয়ে প্রায় সময় হুমকি ধামকি দিতো, গত শনিবার তারা আমাকে হত্যার জন্য পরিকল্পিত ভাবে আক্রমণ চালায় আমি ও আমার পরিবার এখন নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি,আমি প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা দৃষ্টি কামনা করছি সাথে শরীয়তপুর পুলিশ সুপার এর নিকট দাবি জানাচ্ছি তাদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহনের।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী আহত আলঙ্গীর চৌকিদার এর সাথে থাকা ফুপাতো ভাই সায়মন মাদবর বলেন আমরা একসাথে দোকান বন্ধ করে যাচ্ছি কাউয়াদি মোল্লা মার্কেট রোডে গেলে বর্তমান চেয়ারম্যান জলিল মাদবর হুকুম দিয়ে বলে বোমা বিস্ফোরণ কর এবং আলঙ্গীর চৌকিদার কে জানে শেষ করে ফেলতে বলে তার পর কিছু বুঝে উঠার আগেই অধ্যশতাধিক শন্ত্রাসীরা হাতে ধারালো চাপাটি ছুড়ি, রড, নিয়ে এলোপাথাড়ি কোপাতে থাকেন, আমি বাধা দিলে আমার শরিরের বিভিন্ন এস্থানে চাইনিজ কুড়াল দিয়ে আঘাত করে আমিও অচেতন হয়ে যাই।

এই ঘটনায় ওই এলাকার মানুষ বর্তমান চেয়ারম্যান জলিল মাদবর এর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল করে এর তিব্র নিন্দা জানিয়েছেন।

জাজিরা উপজেলা হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের ডাক্তার আলঙ্গীর চৌকিদার বলেন সরিলের বিভিন্ন এস্থানে ধারালো অস্ত্রের কোপ রয়েছে। তাঁর দুই পায়ে অগনিত কোপ রয়েছে এবং রগ কেটে ফেলছে। পায়ের রগ কেটে যাওয়ায় তাঁকে দ্রুত ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

আলঙ্গীর চৌকিদার ছোটো ভাই সুমন চৌকিদার বলেন ঘটনার পরপরই আমার ভাইকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসি। সেখানে তাঁর অস্ত্রোপচার করা হয়। বর্তমানে তিনি চিকিৎসকদের নিবিড় পর্যবেক্ষণে আছেন।আমার নিরীহ ভাইকে বিনা কারনে অতর্কিত হামলা করছে তাদের দৃষ্টান্ত মূলক স্বস্তি চাই।

মুলনা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান নূরুল আমিন হাওলাদার বলেন আলঙ্গীর চৌকিদার একজন নরম ভদ্র ছেলে ও বাজার ব্যবসায়ী ওর দোকানে আমরা প্রায়ই বসি তাছাড়া ও আমার নির্বাচন করছে তার কারনে বর্তমান চেয়ারম্যান জলিল মাদবর ও তার বাহিনী দিয়ে এই হামলা চালায় এই ঘটনায় ভুক্তভোগী পরিবার একটি মামলা দায়ের করলে আসামিরা আগাম জামিনে বেরিয়ে পরিবারের সদস্য দের হুমকি ধামকি দিচ্ছে, আমি শরীয়তপুর জেলা পুলিশ সুপার এর নিকট দাবি জানাচ্ছি এই চক্রটির বিরুদ্ধে বহু অভিযোগ রয়েছে তাই কঠোর হাতে তাদের দমনের অনুরোধ করছি।

আলঙ্গীর চৌকিদার এর বড়ো ভাই ছোরহাব চৌকিদার বলেন এই জলিল মাদবর ও তার ভাই বেরাদার আগে থেকে এমন তাদের বিরুদ্ধে মাডার মামলার মতো ভয়াবহ অভিযোগ রয়েছে,আমার ভাই এর উপর হামলার ঘটনায় আমি সঠিক বিচার দাবি করছি এবং তারা আইনের ফাঁক ফোকোর দিয়ে জেনো বের না হতে পারে আমি সেই দাবি জানাচ্ছি।

বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হামিদ চৌকিদার বলেন আমরা নিরীহ পরিবার, বর্তমান চেয়ারম্যান জলিল মাদবর এর নির্বাচন না করায় আমার ছেলেকে হত্যার উদ্দেশ্য হামলা চালায়, আমার ছেলের শরীরের বিভিন্ন জায়গায় কুপিয়ে জখম করে,আমার ছেলে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে, আমি দেশের জন্য যুদ্ধে ঝাপিয়ে পরছি, দেশ স্বাধীন করছি, সন্ত্রাসীদের ভয়ে এখন আতংকে দিন কাটাচ্ছি।

জাজিরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ব্যবসায়ী আলঙ্গীর চৌকিদার এই ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করছে, আমরা প্রকৃত ঘটনা উদঘাটনের চেষ্টা করছি, আমাদের পুলিশ আসামিদের ধরবার চেষ্টায় আছেন পরিবারের কোন হামলার হুমকি ধামকি দিলে তরা আমাদের কাছে লেখিত অভিযোগ করতে পারেন।আমার তাদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

               

সর্বশেষ নিউজ