২৩, মে, ২০২৪, বৃহস্পতিবার
     

মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশগুলোকে ফিলিস্তিনের পাশে চায় ইরান

ক্রাইমভিশন ডেস্ক:

ইরানের প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘ফিলিস্তিনি জনগণকে সমর্থন করার জন্য মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশের সরকারগুলোকে মুসলিম সম্প্রদায়ের হয়েই থাকতে হবে। ইহুদিবাদী শত্রুদেরও বোঝা উচিত সমীকরণ বদলে গেছে। যুদ্ধ-বিগ্রহ ক্ষতিকর।’

ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে চলমান সংঘাতে মুসলিম বিশ্বকে ফিলিস্তিনের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি।

ফিলিস্তিনের গাজার শাসক দল হামাস শনিবার ইসরায়েলে আকস্মিক হামলা চালানোর পর ইসরায়েলের পক্ষ থেকে পাল্টা হামলা শুরু হয়েছে। এরই প্রেক্ষাপটে রোববার ইরানের প্রেসিডেন্ট এক বার্তায় এ আহ্বান জানান বলে ইসলামিক রিপাবলিক নিউজ এজেন্সির প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

ইরানের প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘ফিলিস্তিনি জনগণকে সমর্থন করার জন্য মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশের সরকারগুলোকে মুসলিম সম্প্রদায়ের হয়েই থাকতে হবে। ইহুদিবাদী শত্রুদেরও বোঝা উচিত সমীকরণ বদলে গেছে। যুদ্ধ-বিগ্রহ ক্ষতিকর।’

তিনি আরও বলেন, ‘এই যুদ্ধে ফিলিস্তিনি জনগণ বিজয়ী হয়েছে। ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইহুদিবাদী শাসনের বিরুদ্ধে ফিলিস্তিনি জাতির বৈধ প্রতিরোধকে সমর্থন করে।’

গাজা উপত্যকার শাসক দল হামাস শনিবার ভোরে ইসরায়েলে অতর্কিত হামলা চালালে প্রাথমিক পর্যায়ে ৪০ জনের মৃত্যুর তথ্য পাওয়া যায়। এরপর নিহতের সংখ্যা বাড়তে থাকে। পরে পাল্টা বিমান হামলা শুরু করে ইসরায়েলও। দুই পক্ষই ব্যাপক সংঘর্ষে জড়ায়।

হামাসের হামলা ও গাজায় ইসরায়েলের পাল্টা হামলায় দুই ভূখণ্ডে এক হাজার এক শর বেশি মানুষ নিহত হয়েছে, যাদের অনেকেই নারী ও শিশু।

               

সর্বশেষ নিউজ